কাগজ প্রতিবেদক: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ৭টি আসনে বিজয়ী হয়েছে। এর মধ্যে বিএনপির ৫টি ও গণফোরামের ২টি আসন।
বগুড়া-৬ (সদর) আসনে বিএনপি মহাসচিব ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন। এ আসনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর পেয়েছেন ২ লাখ ৫ হাজার ৯৮৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের নুরুল ইসলাম ওমর পেয়েছেন ৩৯ হাজার ৯৬১ ভোট।
বগুড়া-৪ (নন্দীগ্রাম-কাহালু) আসনে ১ লাখ ২৬ হাজার ৭২২ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেছেন বিএনপি প্রার্থী মোশারফ হোসেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের প্রার্থী এ কে এম রেজাউল করিম তানসেন নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৮৪ হাজার ৬৭৯ ভোট।
ঠাকুরগাঁও-৩ আসনে বিএনপির প্রার্থী জাহিদুর রহমান ৮৭,১৬৫ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির ইয়াসিন আলী পেয়েছেন ৭০৯ ভোট।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) এর আমিনুল ইসলাম পেয়েছেন ১ লাখ পঁচাত্তর হাজার ৪৬৬ ভোট। তার নিকটতম প্রার্থী আওয়ামী লীগের জিয়াউর রহমান পেয়েছেন ১ লাখ ৩৯ হাজার ৯৫২ ভোট।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনে বিএনপির হারুনুর রশিদ পেয়েছেন ১ লাখ ৩৩ হাজার ৬৬১ ভোট। তার নিকটতম প্রার্থী আওয়ামী লীগের আব্দুল ওয়াদুদ পেয়েছেন ৮৫ হাজার ৯৩৮ ভোট।
গণফোরারে দুই সদস্য হলেন- সিলেট-২ আসন থেকে মোকাব্বির খান ও মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে সুলতান মোহাম্মদ মনসুর।
তাদের মধ্যে মোকাব্বির দলীয় প্রতীক উদীয়মান সূর্য নিয়ে নির্বাচন করলেও সুলতান মনসুর ঐক্যফ্রন্টের শরিক হিসেবে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করেছেন।
সিলেট-২ (বিশ্বনাথ ও ওসমানীনগর) আসনে ১২৭টি কেন্দ্রে ‘উদীয়মান সূর্য’ প্রতীকে ৬৯ হাজার ৪২০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন মোকাব্বির খান। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী আওয়ামী নেতা মুহিবুর রহমান ‘ডাব’ প্রতীকে পেয়েছেন ৩০ হাজার ৪২০ ভোট।

আর মৌলভীবাজার-২ আসনে ধানের শীষের প্রতীক নিয়ে ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ জয়ী হন। এ আসনে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে মোট ৯৩টি কেন্দ্রের মধ্যে ধানের শীষ নিয়ে সুলতান পেয়েছেন ৭৯ হাজার ৭৪২ ভোট। নৌকা নিয়ে শাহীন পেয়েছেন ৭৭ হাজার ১৭০ ভোট।