বাংলাদেশ ডেস্ক: বিয়ের জন্য পাকিস্তানি নারীদের বিয়ে করতে আগ্রহী চীনা পুরুষরা। দেশটির লাহোর, রাওয়ালপিন্ডি, গুজরানওয়ালা, মান্ডি বাহাউদ্দিন ও ফয়সালাবাদের নারীদের সবচেয়ে বেশি পছন্দ তাদের। কিন্তু কী কারণে পাকিস্তানি নারীদের প্রতি চীনাদের এত আগ্রহ?

এ নিয়ে একটি শুক্রবার (০১ জানুয়ারি) একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম দ্য সিয়াসাত ডেইলি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, চীনের বিবাহযোগ্য পুরুষদের বিয়ের জন্য পাকিস্তানি কনের সন্ধানের অন্যতম কারণ দেশটির জনসংখ্যার ক্ষেত্রে ক্রমবর্ধমান পার্থক্য। সেই সঙ্গে পাকিস্তানের বেশকিছু জায়গায় ব্যাপক দারিদ্র্য জনগোষ্ঠী অভাব থেকে বেরিয়ে আসতে চায়। এসব পাক নারী বেশিরভাগই সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের। আর বিয়ে করতে গিয়ে চীনের বরপক্ষ থেকে অনেকক্ষেত্রেই এসব নারীদের নানা ধরনের প্রলোভন দেওয়া হচ্ছে।

মূলত চীনের এক সন্তান নীতি বেশ ভোগাচ্ছে দেশটিকে। পুত্রসন্তানরা প্রাধান্য পাওয়ায় লিঙ্গ সংক্রান্ত যে পার্থক্য গড়ে উঠেছিল তা এখনও রয়ে গেছে। যদিও ওই নীতি এখন করা বাতিল হয়েছে।

২০২০ সালের ডিসেম্বরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, চীনে বিবাহযোগ্য পুরুষের সংখ্যা বিবাহযোগ্য নারীদের তুলনায় তিন কোটি বেশি। অপরদিকে, দরিদ্র জীবন থেকে একটি ভালো জীবনের আশায় পাকিস্তানি নারীরাও ভিনদেশে বিয়ে করছে। দুই দেশের মধ্যে ভালো সম্পর্কের কারণে একে অন্যের সাহায্য নিচ্ছে। সে কারণেই পাকিস্তানি নারীদের সঙ্গে চীনা পুরুষদের বিয়ের সংখ্যাও দিন দিন বাড়ছেই।

Previous article২০২০ সালে ৩শ’ মানুষকে বিনা বিচারে হত্যা করা হয়েছে: ফখরুল
Next articleনির্বাচন এলে অভিযোগের বাক্স খোলে বিএনপি: তথ্যমন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।