নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম নেতা মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, আমরা অপেক্ষা করছি। আগামী পরশু (৬ নভেম্বর) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আমাদের জনসভা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শুনে রাখুন-৬ তারিখের জনসভায় আমরা আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করবো। পরে আরো বড় পরিসরে আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করবো। আমাদের আন্দোলন মানে সহিংসতা নয়, আন্দোলন মানে ভাঙচুর নয়। কিছুই করিনি তাতেই যে তাদের অবস্থা, কিছু করলে কী হবে?

আজ রবিবার রাজধানীর প্রেস ক্লাবে জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলন নামের একটি সংগঠনের প্রতিনিধি সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, আমরা আমাদের চিঠি নির্বাচন কমিশনে দিয়েছি, প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে দিয়েছি। আমি আশা করি তারা চিঠি পেয়েছেন। আমরা অপেক্ষা করছি।

তিনি বলেন, আমরা যদি আলোচনায় সমস্যার সমাধান করতে পারি, তাহলে আন্দোলনে যাওয়া লাগবে না। কিন্তু আলোচনা হবে না বলে ছলচাতুরি করে ক্ষমতায় টিকে থাকবেন, তা হবে না। যদি মনে করেন গতবারের মতো নির্বাচন করে পার পেয়ে যাবেন তবে মনে রাখেন, এবার কোনো পথ পাবেন না। এবার সবক্ষেত্রে লড়াইয়ের মোকাবিলা করে যেতে হবে আপনাদের।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, সন্ত্রাস কাকে বলে সেটা আপনারা করছেন। রাজনৈতিক কর্মীদের সবচেয়ে বেশি কারাবরণ আপনাদের আমলে হয়েছে। এসব পথ বাদ দিয়ে একটা সুস্থ ও সুন্দর পথে আসেন।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন জাতীয় মানবাধিকার আন্দোলনের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান মুহাম্মদ মাহমুদুল হাসান, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সচিব খন্দকার মহিউদ্দিন মাহী, তেজগাঁও থানা বিএনপির সহসভাপতি হাফিজুর রহমান কবিরসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।