কাগজ প্রতিবেদক: জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পাবনার বেড়া থেকে গণফোরামের এমপি পদপ্রার্থী অধ্যাপক আবু সাইয়িদের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগে মামলা হয়েছে। আজ ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে বাদী হয়ে এ মামলা করেন রাজধানীর উত্তরার বাসিন্দা ও পাবনার বেড়া পশ্চিমপাড়ার শামসুল হকের ছেলে এস এম নাসিফ শামস।

পরে বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে ঢাকা মহানগর হাকিম মোর্শেদ আল মাসুম ভঁইয়া রাজধানীর শেরে বাংলানগর থানাকে তদন্ত করে ১০ জানুয়ারি প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

মামলায় অভিযোগ করা হয়, বাদীর পিতা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ থেকে পাবনার বেড়া এলাকার মনোনীত এমপি পদপ্রার্থী। অপরদিকে, আসামি একই এলাকা থেকে ঐক্যফ্রন্ট থেকে গণফোরামের এমপি পদপ্রার্থী হয়েছেন, মার্কা ধানের শীষ। আসামি অধ্যাপক আবু সাইয়িদ কোন কলেজ, কখন অধ্যাপনা করেছেন তা সমাজের মানুষের এবং বাদীর জানা নেই। তবে খন্ডকালীন প্রভাষক হিসাবে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যলয়ে অল্প সময়ের জন্য কর্মরত ছিলেন বলে জনশ্রুতি আছে।
আসামি অধ্যাপক না হয়েও বিভিন্ন জায়গায়, বই-পুস্তকে এবং নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের হলফনামায় অধ্যাপক টাইটেল ব্যবহার করেছেন। যা সমাজের মানুষের কাছে মিথ্যা প্রচার করে ভোট পাওয়ার পায়তারাসহ সাধারণ জনগণকে বিভ্রান্ত করছেন। তিনি রাজনীতি ও নির্বাচনে সক্রিয় থেকে কোথায় অধ্যাপনা করছেন, তা আসামির কাছে প্রমাণ নেই। ফলে আসামি অধ্যাপক না হয়ে অধ্যাপকের পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করে আসছেন এবং সাধারণ মানুষের কাছে ভুল তথ্য প্রচার করে বিভ্রান্ত করছেন।