সদরুল আইন: দলীয় সরকারের অধীনে যে নির্বাচন হয় না তা আবারও প্রমাণিত হয়েছে। শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে থাকতে চায় বিএনপি। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত বিকেলে ঐক্যফ্রন্টের সভায় বলে জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বৃহস্পতিবার সকালে ঠাকুরগাঁওয়ে এক নির্বাচনী সভায় তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে বুধবার বিকেলে বগুড়াবাসীর উদ্দেশে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আগামী ৩০ ডিসেম্বর ভোট দিলে আপনারা আপনাদের পুত্রবধূকে (খালেদা জিয়া) ফিরে পাবেন।

বগুড়া-৬ (সদর) আসনের ধানের শীষের প্রার্থী মির্জা ফখরুল আরও বলেন, আপনারা নিজে, আত্মীয়স্বজন, বন্ধু-বান্ধবকে সঙ্গে নিয়ে কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেবেন।

শেষে ফলাফল নিয়ে ঘরে ফিরবেন। আর ভোট দিলে আপনারা আপনাদের পুত্রবধূকে (খালেদা জিয়া) ফিরে পাবেন। দেশে স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব ও দেশের ভবিষ্যৎ ফিরে আসবে। এ ভোটের মধ্য দিয়ে গণতন্ত্রের মুক্তি, আইনের শাসনের মুক্তি, ইফসাফ প্রতিষ্ঠার মুক্তি হবে। অন্যথায় দেশে আবারো একদলীয় শাসন কায়েম হবে।

বুধবার বিকেলে বগুড়া শহরতলির বাঘোপাড়া হাজী দানেশ উদ্দিন স্কুল ও কলেজ মাঠে সদর উপজেলা বিএনপি আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন ফখরুল।

মির্জা ফখরুল বলেন, তফসিল ঘোষণার পর থেকে সরকার নির্বাচন বানচাল করতে বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপর হামলা-মামলা অব্যাহত রেখেছে। আর জনগণকে বিভ্রান্ত করতে মিথ্যাচার করছে। এ দেশের মানুষ গোলামি থেকে মুক্তি ও আওয়ামী লীগের নির্যাতন থেকে বাঁচতে চায়।

তিনি বলেন, জুলুমবাজ এ সরকার দেশনেত্রী বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে প্রহসনের বিচারে কারাগারে আটকে রেখেছে। সুস্থ নেত্রী এখন হুইল চেয়ারে চলাফেরা করছেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আগেও বলেছি- আমি এখানে নির্বাচন করছি না; খালেদা জিয়ার প্রতিনিধিত্ব করতে এসেছি।

সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মাফতুন আহমেদ খান রুবেলের সভাপতিত্বে ও জেলা বিএনপির সহসভাপতি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আলী আজগর তালুকদার হেনার সঞ্চালনায় অন্যদের মধ্যে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতা ও নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক এবং বগুড়া-২ (শিবগঞ্জ) আসনের ধানের শীষের প্রার্থী মাহমুদুর রহমান মান্না, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন, সদর আসনের প্রার্থীর প্রধান নির্বাচনী সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমান, জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা, যুগ্ম সম্পাদক তাহা উদ্দিন নাহিন, যুগ্ম সম্পাদক সহিদ-উন-নবী সালাম, জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক খাদেমুল ইসলাম খাদেম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।