সরকার গণতন্ত্রের লাশের ওপর কীর্তন করছে: সুব্রত চৌধুরী

কাগজ প্রতিবেদক: সরকার গণতন্ত্রকে লাশ বানিয়ে তার ওপর দাঁড়িয়ে কীর্তন করছে বলে মন্তব্য করেছেন গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতা অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী। বুধবার বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আয়োজিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে তিনি এ মন্তব্য করেন। বিকেল তিনটা থেকে চারটা পর্যন্ত এ কর্মসূচি পালন করা হয়।
সুব্রত চৌধুরী বলেন, ‘নির্লজ্জ সরকার! বিশ্বের কোথাও এ ধরনের সরকার আর নেই। ফ্যাসিবাদী, স্বৈরাচারকে ছাড়িয়ে গেছে। ৫ জানুয়ারি এক কান কাটা গিয়েছিল। এবার তার পূর্ণতা পেয়েছে। তারা নোবেল পাক!’
রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠাতে সরকার ব্যর্থ হওয়ায় তার কঠোর সমালোচনা করেন ঐক্যফ্রন্টের এই নেতা। তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গা ডেকে আনল কিন্তু তাদেরকে ফেরত পাঠানোর মুরদ নেই সরকারের।’
গণফোরাম সভাপতি বলেন, ৩০ ডিসেম্বর গণতন্ত্রের লাশ বানিয়ে তার ওপর দাঁড়িয়ে কীর্তন করছে সরকার। তাদের মনে অনেক জ্বালা আর মুখে কাষ্ঠ হাসি। এদের আমলে বিচারবিভাগ, ভোটাধিকার সব কিছু অর্থহীন। মিথ্যা মামলায় নিপীড়িতদের কান্নায় আকাশ ভারী হয়ে উঠেছে। এই কান্নায় সরকারের পতন হবে।
গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, দেশের অবস্থা মর্মান্তিক। ৩০ ডিসেম্বর বিনা জানাজায় দেশের মানুষের ভোটাধিকারকে কবর দেয়া হয়েছে। এখন চলছে পুরস্কার প্রদানের উৎসর। অপেক্ষা করেন, সামনে দেখবেন প্রশাসন ও পুলিশের রঙ্গলীলা।