কৃষ্ণচূড়া চত্বরে নেতাকর্মীদের ঢল, লাখো কণ্ঠে ‘খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই’

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে জনতার ঢল নেমেছে ময়মনসিংহের কৃষ্ণচূড়া চত্বরের সমাবেশস্থলে। বৃহস্পতিবারের এই মহানগর সমাবেশকে কেন্দ্র করে জেলা ও উপজেলার দলীয় এবং অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের হাজার হাজার হাজার নেতাকর্মী বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ময়মনসিংহ শহর অভিমুখে রওনা দেয়। দুপুর ১২টার পর থেকেই বিভিন্ন স্থান থেকে আসা শহরজুড়ে নেতাকর্মীদের পদচারণা বাড়তে থাকে।

দেশনেত্রীর মুক্তির দাবিতে ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের এই সমাবেশকে কেন্দ্র করে গোটা নগরী আজ উৎসবের শহরে পরিণত হয়েছে। সমাবেশের উদ্দেশ্যে দূর-দূরান্ত থেকে আসা নেতাকর্মীদের অনেকেই অভিযোগ করছেন, পথে তাদের বাধা দেয়া হচ্ছে। তারা সমাবেশে যেন আসতে না পারে সেজন্য গণপরিবহনগুলোও সময় মতো ছাড়ছে না।

বৃহস্পতিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর ২টায় এই সমাবেশ শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। ইতোমধ্যে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আগমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খানসহ একাধিক শীর্ষ নেতা ময়মনসিংহে পৌঁছেছেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার জানিয়েছেন, বেলা পৌনে ১১টার দিকে কৃষ্ণচূড়া চত্বরে বিএনপিকে সমাবেশের লিখিত অনুমতি দিয়েছে ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসক ও জেলা পুলিশ সুপার।

জেলা পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন ব্রেকিংনিউজকে বলেছেন, ‘বিএনপিকে কৃষ্ণচূড়া চত্বরে সমাবেশের অনুমতি দেয়া হয়েছে। তারা সমাবেশ করবে। যেকোনও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ময়মনসিংহ মেট্রোপলিটন পুলিশ (এমএমপি) সহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সর্বোচ্চ তৎপর থাকবে।’

মাবেশের ব্যাপারে বিএনপির বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্স ও ময়মনসিংহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবু আহাদ আকন্দ জানিয়েছেন, কৃষ্ণচূড়া চত্বরের সমাবেশে অন্তত অর্ধলক্ষ লোকের সমাগম হবে। এই সমাবেশ থেকে সরকার পতন, খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন ও বিএনপির রাজনৈতিক কর্মকৌশল সম্পর্কে দিকনির্দেশনা দেবেন শীর্ষ নেতারা।

এদিকে সমাবেশ স্থলে আলাদা আলাদা মিছিল নিয়ে আসতে থাকা নেতাকর্মীদের হাতে শোভা পাচ্ছে ব্যানার, ফেস্টুন, প্ল্যাকার্ড। সেগুলোতে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সরকারের পতন দাবি সম্বলিত লিখা চোখে পড়েছে। নেতাকর্মীরা বজ্রকণ্ঠে দেশনেত্রীর মুক্তির আওয়াজ তুলে সমাবেশস্থলের দিকে অগ্রসর হচ্ছেন।

ময়মনসিংহ জেলা দক্ষিণ বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবু ওয়াহাব আকন্দের পরিচালনায় সমাবেশের শুরুতে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মোনাজাত পরিচালনা করবেন ওলামাদলের জেলা সভাপতি। এরপর স্থানীয় নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখবেন।

এর পরই বক্তব্য দেবেন দলের কেন্দ্রীয় নেতারা। ময়মনসিংহ জেলা দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি একে এম শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেবেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এদিকে সমাবেশে যোগ দিতে বিভাগের ৪ জেলা ও বিভিন্ন উপজেলা থেকে নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে সমাবেশ স্থলে আসছেন। এ কারণে লোকে লোকারণ্য হয়ে গেছে রেলওয়ে চত্বর।

নানা নাটকীয়তার পর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে সমাবেশ আয়োজনের অনুমতি পায় বিএনপি। এর আগে রাতে সভার মঞ্চ প্রস্তুত করা বন্ধ করে দেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। পরে অনুমতি পাওয়ায় সকালে ফের মঞ্চ নির্মাণ করা হয়।