নুসরাতের মামলার রায় বিচারহীনতা সংস্কৃতি দূর করার দৃষ্টান্ত: আইনমন্ত্রী

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: আগুনে পুড়িয়ে হত্যাকাণ্ডের শিকার মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির পরিবারের জন্য যতদিন নিরাপত্তা প্রয়োজন ততদিনই পুলিশ নিরাপত্তা দেবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

শুক্রবার দুপুর পৌনে ১২টার দিকে রাজধানীর গুলশানে নিজ বাসভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে একথা জানান তিনি।

মন্ত্রী বলেন, রায়ের সাত দিনের মধ্যে হাইকোর্টে কাগজপত্র আসবে। কাগজপত্র এলে সুপ্রিম কোর্ট দ্রুত নিষ্পত্তি করবেন বলে আশা রাখি। এছাড়াও নুসরাতের পরিবারকে যতদিন প্রয়োজন, ততদিন নিরাপত্তা দেওয়া হবে। কেউ তাদের হুমকি দিলে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তিনি বলেন, এটি গুরুত্বপূর্ণ মামলা, গুরুত্ব সহকারে শেষ করেছেন প্রসিকিউশন। বিচারহীনতার সংস্কৃতি দূর করার দৃষ্টান্ত হলো এই রায়।

বৃহস্পতিবার ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রসাছাত্রী নুসরাত হত্যার রায়ে অধ্যক্ষ সিরাজ উদ-দৌলাসহ ১৬ আসামির মৃত্যুদণ্ডের রায় হয়। রায় ঘোষণার পর থেকেই নিরাপত্তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন নুসরাতের পরিবারের সদস্যরা। তাদের পুলিশি নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।

অনিসুল হক বলেন, এই রায়ে প্রমাণিত হলো, অপরাধী যে-ই হোক না কেন, সাজা পেতেই হবে। এ রায় আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় মাইলফলক। জনগণকে আমরা এ বার্তা দিতে চাই, যে যত ক্ষমতাধর হোক না কেন, শেখ হাসিনার সরকার বিচার করবেই।