মেননকে তার বক্তব্য প্রত্যাহারসহ জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহবান আ.স.ম. ফিরোজের

অতুল পাল: সাবেক চীফ হুইপ আ.স.ম. ফিরোজ অশালীন ও বিভ্রান্তকর বক্তব্য দেয়ার জন্য সংসদ সদস্য রাশেদ খান মেননকে তার বক্তব্য প্রত্যাহারসহ জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহবান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা যখন দুর্নীতির বিরুদ্ধে শুদ্ধি অভিযান শুরু করেছেন, তখন একটি চক্র দেশকে অস্থিতিশীল করার পায়তারা করছেন। তিনি তাদের বাতাসে পাল উড়ানোর চেষ্টা করছেন। এতদিন শেখ হাসিনার জয়গান করেছেন, এখন মন্ত্রীত্ব না পাওয়ার বেদনায় আপনি এই অশালীন কথা বলে আওয়ামী লীগকে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টা করছেন। আপনার ওই বক্তব্যের জন্য জাতির কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিৎ। আজ পটুয়াখালীর বাউফলের কাছিপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আ.স.ম. ফিরোজ এ কথা বলেন। কাছিপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি বাবুল আখতারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, যারা দলের জন্য নিবেদিত প্রাণ, যারা সকল প্রকার লোভ লালশার উর্ধে উঠে দলকে ভালবাসবেন তাদেরকেই এই সম্মেলনের মাধ্যমে দলে অর্ন্তভূক্ত করা হবে। কোন ভাবেই অনুপ্রবেশকারীদের দলে ঠাই হবে না। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আবদুল মান্নান, বাউফল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মোতালেব হাওলাদার প্রমূখ, কাছিপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম প্রমূখ। সম্মেলনে বাবুল আখতারকে সভাপতি এবং শহিদুল ইসলামকে সাধারন সম্পাদক করে ৫১ সদস্য বিশিষ্ট ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, রফিকুল ইসলামকে সভাপতি এবং সুমনকে সাধারন সম্পাদক করে যুবলীগ, রিয়াজ খানকে সভাপতি এবং জামাল হাওলাদারকে সাধারন সম্পাদক করে স্বেচ্ছাসেবক লীগ, শাহনাজ পারভীনকে সভাপতি এবং শামিমা বেগমকে সাধারন সম্পাদক করে মহিলা আওয়ামী লীগ, নুর নাহার শিল্পীকে সভাপতি এবং হেলেনা বেগমকে সাধারন সম্পাদক করে যুব মহিলা লীগ, রোশনে আলীকে সভাপতি এবং হালিম আকন কে সাধারন সম্পাদক করে শ্রমিক লীগ এবং রিয়াজ আকনকে সভাপতি এবং নিরব গনপতিকে সাধারন সম্পাদক করে ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। ছাত্রলীগের কাউন্সিলে দুই গ্রুপ সংঘর্ষে লিপ্ত হলেও সম্মেলনের মাধ্যমে উহা নিরসন করা হয়।