বাংলাদেশ প্রতিবেদক: স্থানীয় সরকার নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নিশ্চিত করতে অনুপ্রবেশকারীদের ঠেকানো হবে বলে জানালেন আওয়ামী লীগ নেতারা। দলে থেকে বিদ্রোহীদের যারা উস্কে দিচ্ছেন তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি তাদের। এদিকে ১৪ দলের নেতারা বলছেন, এক তরফা নির্বাচন হওয়ার কারণেই এ ধরনের সহিংসতা বাড়ছে।

স্থানীয় সরকার নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গেল কয়েকদিন ধরেই দেশের বিভিন্ন স্থানে সংঘাতে জড়াচ্ছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও বিদ্রোহী প্রার্থীরা। বার বার হুঁশিয়ারি সত্ত্বেও বন্ধ হচ্ছে না সহিংসতা।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা মনে করেন, এসব সংঘর্ষের ঘটনায় উস্কানি দিচ্ছে অনুপ্রবেশকারীরা। বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলছেন তারা।

বিএম মোজাম্মেল হক বলেন, যারা দলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে অবস্থান নেবে এবং অপকর্মের সঙ্গে যুক্ত হবে সে যত বড়ই নেতাই হোক না কেন যত শক্তিশালী নেতাই হোক না কেন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব উল আলম হানিফ বলেন, কিছু জায়গায় সুবিধাবাদী ব্যক্তিদের বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে দল বিব্রত। এদেরকে দল থেকে বাদ দেওয়া হবে।

১৪ দলের অন্যতম সদস্য রাশেদ খান মেনন বলেন, অনুপ্রবেশের কথা বলে সহিংসতার দায় এড়ানো যাবে না। এক তরফা নির্বাচন হওয়ার কারণেই এমন ঘটনা ঘটছে।

দলের ভেতরে থেকে যারা অনুপ্রবেশকারীদের অপতৎপরতার ইন্ধন যোগাচ্ছে, তালিকা করে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান ক্ষমতাসীন দলের কেন্দ্রীয় নেতারা।

Previous articleচাকরিতে মুক্তিযোদ্ধা কোটা পুনর্বহালে ৭ দিনের আলটিমেটাম
Next articleমহামারি করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ১৩ জনের মৃত্যু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।