বাংলাদেশ প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগ সরকার দমন-পীড়ন ও দুঃশাসন চালিয়ে জনগণের শত্রু হয়ে উঠেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ পরিকল্পিতভাবে জনগণের মৌলিক অধিকার হরণ করে ক্ষমতা দখল করেছে। গুমসহ অপশাসন ও অপকর্মের কারণে দেশে এক ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকার সব ক্ষেত্রেই দেশের জনগণের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে।

শুক্রবার ২০১০ সালের ২৪ জুন রাজধানীর ফার্মগেট এলাকা থেকে নিখোঁজ হওয়া বিএনপি নেতা চৌধুরী আলমের বাসায় গিয়ে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল।

তিনি পরিবারের সদস্যদের সাথে কথা বলে তাদের অবস্থার খোঁজ-খবর নেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, যাদের গুম করা হয়েছে তাদের জীবনের অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে।

তিনি বলেন, গুমের শিকার পরিবারগুলো উত্তরাধিকার সনদ ও সম্পত্তির মালিকানা পাচ্ছে না এবং তারা তাদের নিখোঁজ প্রিয়জনের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে রাখা অর্থ লেনদেন করতে পারছেন না। এই পরিবারগুলো গুরুতর সংকটে আছে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে এ ধরনের বহু ঘটনা ঘটেছে। তাদের শাসনামলে সাবেক সংসদ সদস্য ইলিয়াস আলীসহ বিএনপির ছয় শতাধিক নেতাকর্মী গুমের শিকার হয়েছেন।

ফখরুল বলেন, জাতিসঙ্ঘের সনদে সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ আছে যে গুম মানবতাবিরোধী অপরাধ। কিন্তু ফ্যাসিবাদী ও স্বৈরাচারী সরকার এই ধরনের ঘটনা ঘটাচ্ছে।

তিনি বলেন, শুধু গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে দমন করতেই বিচারবহির্ভূত হত্যা, গুম ও হেফাজতে হত্যা করা হচ্ছে, এটা সভ্য সমাজে হতে পারে না।

বন্যা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে বৃহস্পতিবার সিলেট সফর করা ফখরুল বলেন, বন্যাকবলিত মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে এবং তাদের ত্রাণ ও পুনর্বাসনে সরকার কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

Previous articleপদ্মা সেতুর উদ্বোধন বাংলাদেশের জন্য এক গৌরবোজ্জ্বল ঐতিহাসিক দিন: প্রধানমন্ত্রী
Next articleকালিহাতীতে ‘বিনা’ কর্তৃক উদ্ভাবিত ফসলের চাষাবাদ কৌশল শীর্ষক কৃষক প্রশিক্ষণ কর্মশালা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।