মঙ্গলবার, জুলাই ২৩, ২০২৪
Homeরাজনীতিরানা প্লাজায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য আসা দেশী-বিদেশী অনুদানের হিসাব দিতে হবে: নুর

রানা প্লাজায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য আসা দেশী-বিদেশী অনুদানের হিসাব দিতে হবে: নুর

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: বাংলাদেশ শ্রমিক অধিকার পরিষদ আয়োজিত মহান মে দিবসে র‍্যালি-পরবর্তী শ্রমিক সমাবেশে গণঅধিকার পরিষদের সদস্যসচিব নুরুলহক নুর বলেছেন, রানা প্লাজায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য পাওয়া দেশী-বিদেশী সকল অনুদানের হিসাব দিতে হবে। কোথায় থেকে কত অনুদান এসেছিল আর সে সকল অনুদান কোন খাতে কত খরচ হয়েছিল সচ্ছতার সাথে সব হিসাব চাই। রানা প্লাজায় আহত অনেক শ্রমিক এখনো চলাফেরা করতে পারে না, অনেকের চাকরি নেই।অথচ এই রানা প্লাজা নিয়ে পত্রপত্রিকায় লেখালেখি হয়েছিল, আলোচনা হয়েছিলো কিন্তু সেভাবে ভুক্তভোগীরা সহযোগিতা পায়নি।

নুর আরো বলেন, বিভিন্ন সময় সরকার দলীয় নেতারা শ্রমিকদের ব্যবহার করে, তাদের দিয়ে বিভিন্ন সময় মিছিল মিটিং করায়, এমনকি লাঠিয়াল বাহিনী হিসেবেও ব্যবহার করে। অথচ কোভিডের সময় এই শ্রমিকদের পাশে দাড়াতে দেখা যায়নি। বর্তমান সময়ে শ্রমিকরা যা বেতন পান তা দিয়ে চলতে পারে না, কারণ সব কিছুর দাম অনেক বেশি। ১০ টাকা কেজি চাল খাওয়ানোর কথা বলে এখন ৭০/৮০ টাকা কেজি চাল খাওয়াচ্ছে সরকার। আর ৭০/৮০ কেজি সয়াবিন তেলের দাম এখন ২০০ টাকা।

বঙ্গবাজারের আগুন লাগার প্রসঙ্গে নুর বলেন, বঙ্গবাজারের আগুন লেগেছিল নাকি লাগানো হয়েছিল তা বলবো না। তবে আগুন লাগার পরপরই যখন সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ের লোকেরা সেখানে বহুতল ভবন নির্মাণের কথা বলে তখন বুঝতে বাকি থাকে না, আসলে বঙ্গবাজারে আগুন লাগার পিছনে আসল কাহিনী কী।

আজ ১ মে আন্তর্জাতিক শ্রমিক দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ শ্রমিক অধিকার পরিষদ শ্রমিক র‍্যালি ও সমাবেশ করে। এতে সভাপতিত্ব করেন শ্রমিক অধিকার পরিষদের সভাপতি আব্দুর রহমান। সকালে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয় সামনে থেকে শ্রমিকদের বিভিন্ন দাবি সম্বলিত ফেস্টুন, প্লাকার্ডসহ শ্রমিক র‍্যালিটি বিজয়নগর-কাকরাইল হয়ে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

এবারের মে দিবসের মূল দাবি ছিল, রাষ্ট্রীয় নীতিনির্ধারণী সকল পর্যায়ে শ্রমজীবী মানুষের প্রতিনিধিত্ব, ২৫,০০০ টাকা ন্যূনতম জাতীয় মজুরি, কর্মসংস্থান, খাদ্য, চিকিৎসা ও আবাসন নিশ্চিতকরণ এবং সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও অর্থ পাচার বন্ধ করা।

মহান মে দিবসের র‍্যালি ও সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন শ্রমিক অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা সম্পদ, গণঅধিকার সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক মুহাম্মাদ রাশেদ খান, যুগ্ম সদস্য সচিব তারেক রহমান, শ্রমিক অধিকার পরিষদের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি সোহেল শিকদার, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা ওমর ফারুক, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক রাব্বানী মিয়া রাঙা, সহ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক জে এম রাজু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি শামীম মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক শাকিল শিকদার, উত্তরের সভাপতি মাহবুবুল হক শিপন, জহিরুল ইসলাম প্রমুখ।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments