মঙ্গলবার, জুলাই ২৩, ২০২৪
Homeরাজনীতিদেশকে সংঘাতের দিকে ঠেলে না দিয়ে ক্ষমতা ছেড়ে দিন: মুফতি ফয়জুল করিম

দেশকে সংঘাতের দিকে ঠেলে না দিয়ে ক্ষমতা ছেড়ে দিন: মুফতি ফয়জুল করিম

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমির শায়েখে চরমোনাই মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম বলেছেন, দেশকে সংঘাতের দিকে ঠেলে না দিয়ে ক্ষমতা ছেড়ে দিয়ে জাতীয় সরকারের ঘোষণা দিতে হবে। জনমতের প্রতি তোয়াক্কা না করে জোর করে ক্ষমতায় থাকার চেষ্টা করলে সরকারের জন্য সুখকর হবে না। দেশে কর্তৃত্ববাদী ও ফ্যাসিবাদী সরকারের পতন ঘটিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। আজ দেশের মানুষ দ্রব্যমূল্যের কষাঘাতে অতিষ্ঠ। পেশি শক্তি প্রদর্শন করা ছাড়া আওয়ামী লীগের দ্বিতীয় কোনো চরিত্র নাই। এদের মধ্যে আদর্শ, নীতি, চরিত্র মহব্বত বলতে কোনো কিছুই নেই, আছে শুধু ক্ষমতার মহব্বত।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার সরকার স্বাধীনতার ৫২ বছরের ইতিহাসকে কলঙ্কিত করেছে। দিনের ভোট রাতে গ্রহণ করেছে। সরকার জনগণের ভোটাধিকার ও নাগরিক অধিকার হত্যা করেছে। কথিত শান্তি সমাবেশে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের বক্তব্য চলমান রাজনৈতিক সঙ্কটকে আরো উস্কে দিয়েছে। দেশের নিবন্ধিত অধিকাংশ রাজনৈতিক দল দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন চায় না। তাই আওয়ামী লীগ সরকার যদি ২০২৪ ও ২০১৮ সালের মতো আবারো নির্বাচন করতে চায় তাহলে দেশের জনগণ এই সরকারকে ক্ষমতা থেকে টেনেহিঁচড়ে নামাবে।

বৃহস্পতিবার (১৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় শরীয়তপুর ফায়ার সার্ভিস সংলগ্ন বালুর মাঠে শরীয়তপুর জেলা সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতা চায়নি বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, ৬ দফা, ১১ দফা, ১৮ দফা ও ২১ দফায় কোনো স্বাধীনতার কথা নেই। শেখ সাহেবও স্বাধীনতা চাননি। তিনি চেয়েছিলেন পূর্ব পাকিস্তান ও পশ্চিম পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট হবেন। ইয়াহিয়া খান, আইয়ুব খান, পাকিস্তানিরা দেশের মানুষের ভোটের মর্যাদা দিতে পারেনি বলে এদেশের মানুষের কাছে যা কিছু ছিল তাই নিয়ে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে দেশকে স্বাধীন করেছিলাম? শেখ হাসিনা সরকার পদ্মা সেতুসহ যতই উন্নয়নের কথা বলুক না কেন, তিনি যদি বাংলাদেশের মানুষের ভোটের অধিকার থেকে বঞ্চিত করেন তাহলে বাংলাদেশের মানুষের কাছে যা কিছু আছে তাই নিয়েই আপনার বিরুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়বে। তাই সকল প্রকার ঝামেলা বাদ দিয়ে জাতীয় সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন দিন।

তিনি বলেন, যারা আওয়ামী লীগ করবে তাদের চাকরি আছে, টাকা আছে, পেটে ভাত আছে, নামীদামী গাড়ি আছে, সিংগাপুরে চিকিৎসা আছে। কিন্তু আওয়ামী লীগ না করলে ধুঁকে ধুঁকে মরতে হবে। আওয়ামী লীগ করবেন আপনার সামাজিক মর্যাদা আছে, আওয়ামী লীগ করবেন না আপনি যত বড়ই সম্মানিত ব্যক্তি হোন না কেন রাস্তায় ফেলে পেটানো হবে। আওয়ামী লীগ করলে হাজারো গুম খুন করে বুক উঁচু করে রাস্তায় ঘুরে বেড়াবেন, কিন্তু আওয়ামী লীগ না করলে জেল খানায় পঁচে পঁচে মরবেন। তাহলে এজন্যই কি আমরা এ দেশকে স্বাধীন করেছিলাম?

সমাবেশে ইসলামী আন্দোলনের শরীয়তপুরের সভাপতশে মুফতি তোফায়েল আহমাদ কাসেমীর সভাপতিত্বে এবং ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি মুফতী সাইফুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, দলের সাংগঠনিক সম্পাদক কে এম আতিকুর রহমান, দফতর সম্পাদক মাওলানা লোকমান হোসেন জাফরী, কৃষি ও শ্রম বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক (ফরিদপুর বিভাগ) মাওলানা নূরুল ইসলাম আল আমিন, ইসলামী আইনজীবী পরিষদের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মানিক মিয়া সরদার, ইসলামী আইনজীবী পরিষদের জয়েন্ট সেক্রেটারি অ্যাডভোকেট হানিফ মিয়া রনি, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ শরীয়তপুর জেলা শাখার প্রধান উপদেষ্টা হাফেজ মাওলানা শওকত আলী।

অন্যদের মধ্যে শিক্ষক ফোরামের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম আহসান হাবিব, জেলা আন্দোলনের সহ-সভাপতি আব্দুস ছালাম শিকারী, ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদের জেলা সভাপতি মাওলানা ফেরদাউস আহমদ, যুব আন্দোলনের কেন্দ্র উপ-সম্পাদক মাওলানা হযরত আলী ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সদস্য মো: আশিক মাতবর শিক্ষক ফোরামের জেলা সভাপতি মাওলানা আলী আজগর, শ্রমিক আন্দোলনের জেলা সভাপতি জহিরুল ইসলাম, যুব আন্দোলনের জেলা সভাপতি মাস্টার দেলোয়ার হোসেন, ছাত্র আন্দোলনের জেলা সভাপতি শেখ সাদ্দাম হোসেনসহ আন্দোলনের জেলা নেতবৃন্দ, সহযোগী সংগঠনের জেলা দায়িত্বশীল ও থানা নেতৃবৃন্দ।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments