রবিবার, জুন ২৩, ২০২৪
Homeপ্রবাসের খবরইতালির মিলানে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে  শেখ রাসেলের জন্মদিন ও শেখ রাসেল...

ইতালির মিলানে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে  শেখ রাসেলের জন্মদিন ও শেখ রাসেল দিবস’ উদযাপিত

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ইতালিতে বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল, মিলানের আয়োজনে বিনম্র শ্রদ্ধার সাথে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং বঙ্গমাতা ফজিলাতুন নেছা মুজিব-এঁর কনিষ্ঠ পুত্র শহিদ শেখ রাসেল-এঁর ৬০তম জন্মদিন পালন করা হয়।

অনুষ্ঠানের শুরুতে কনস্যুলেটের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ শেখ রাসেলের স্মৃতির প্রতি সম্মান জানিয়ে তাঁর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এরপর উপস্থিত সকলেই শহিদ শেখ রাসেলসহ ১৫ আগস্টে শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন।

অতঃপর দিবসটি উপলক্ষ্যে মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বাণীসমূহ পাঠ করা হয় এবং আমন্ত্রিত বিদেশি অতিথি ও বিশিষ্ট মানবাধিকার কর্মীদের উপস্থিতিতে শেখ রাসেল দিবস উপলক্ষ্যে আন্তর্জাতিকভাবে দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরতে শেখ রাসেল-এঁর জীবনী ভিত্তিক একটি বিশেষ তথ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।

দিবসটি উপলক্ষ্যে শহিদ শেখ রাসেল-এঁর ক্ষণজন্মা জীবনের বিভিন্ন দিকের উপর আলোকপাত করে একটি সেমিনার আয়োজন করা হয়। এতে বক্তব্য রাখেন, প্রসিডেন্ট ইউনিয়ন ডন আরবের  সভাপতি অমল জন্স এবং  নারী মানবাধিকার নিয়ে কাজ করা  জাতিসংঘের বিশিষ্ট আইনজীবী  ক্রিস্টিয়ানা জিথমি।

বক্তারা বলেন যে, শিশু অধিকার মানবাধিকারের পূর্বশর্ত। তারা যুদ্ধ সংঘাতময় আজকের পৃথিবীতে শিশুদের সুরক্ষায় বিশেষভাবে মনোযোগী হবার জন্য সবার প্রতি আহবান জানান। শিশুদের সুস্থ বিকাশে পরিবার, শ্রেণীকক্ষ ও খেলার মাঠ তথা সমগ্র বিশ্ব শিশু বান্ধব হওয়া প্রয়োজন- সেমিনারে বক্তারা এ বিষয়ে আলোকপাত করেন। উক্ত সেমিনারে কনসাল জেনারেল এম জে এইচ জাবেদ উপস্থিত সকলকে তাদের বক্তব্যের জন্য ধন্যবাদ জানান। এসময় তিনি শহিদ শেখ রাসেলের শিশুসুলভ দুরন্তপনা ও তাঁর চরিত্রের উপর বঙ্গবন্ধুর রাষ্ট্রনায়োকোচিত বৈশিষ্ট্যসমূহকে বিশেষভাবে আলোকপাত করেন। তিনি ১৫ আগস্টের ভয়াবহ রাতে নিষ্পাপ শিশুর প্রতি নির্মমতার মধ্য দিয়ে ভূলুণ্ঠিত মানবাধিকার ও তৎকালীন সময়ে মানবতাবিরোধী এ কর্মকাণ্ডের ন্যায়বিচার নিশ্চিত না হওয়ায় গভীরভাবে আক্ষেপ প্রকাশ করেন।

শিশুদের অধিকার ও মানবাধিকার নিশ্চিত করার মাধ্যমে ‘শেখ রাসেল দিবস’ কে সার্থক করে তুলে ধরার জন্য কনসাল জেনারেল উপস্থিত সকলকে আহ্বান জানান। তিনি শেখ রাসেল দিবসকে উপলক্ষ্য করে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব প্রতিষ্ঠাসহ সরকারের গৃহীত বিভিন্ন উদ্যোগসমূহকে তুলে ধরেন। কনস্যুলেটের আয়োজনে শিশুদের জন্য ক্রীড়া ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার বিষয়ে কনস্যুলেটের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা সম্পর্কে জানান। এছাড়াও, শহিদ শেখ রাসেলকে ভালোবেসে নিজ নিজ পরিমণ্ডলে সকল শিশুকে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার জন্য তিনি উপস্থিত প্রবাসীগণকে অনুরোধ জানান।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerkagoj.com.bd/
Ajker Bangladesh Online Newspaper, We serve complete truth to our readers, Our hands are not obstructed, we can say & open our eyes. County news, Breaking news, National news, bangladeshi news, International news & reporting. 24 hours update.
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments