বাংলাদেশ ডেস্ক: গ্রেফতার হয়েছিলেন ভারত জাতীয় দলের ক্রিকেটার সুরেশ রায়না। মুম্বাইয়ের একটি ক্লাবে অভিযান চালানোর সময় করোনা বিধি না মানায় তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে অবশ্য জামিন পেয়েছেন তারকা এ ক্রিকেটার।

ওই ক্লাব থেকে একই কারণে জনপ্রিয় গায়ক গুরু রানধাওয়াকেও গ্রেফতার করা হয়েছিলো। তিনিও জামিন পেয়েছেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ডিএনএ’র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সোমবার(২১ ডিসেম্বর) দিনগত রাত আড়াইটার দিকে মুম্বাইয়ের ড্রাগনফ্লাই ক্লাবে তল্লাশি চালায় পুলিশ। এ সময় কোভিড বিধিভঙ্গের অভিযোগে রায়না ও গুরু রানধাওয়াসহ মোট ৩৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সাহার থানার সিনিয়র পুলিশ ইন্সপেক্টরের বরাতে সংবাদ প্রতিদিন জানিয়েছে, ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮, ২৬৯ ও ৩৪ ধারায় তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। নাইট কারফিউ উপেক্ষা করে ক্লাবের মধ্যে উদ্দাম পার্টি করার অভিযোগ আনা হয় তাদের বিরুদ্ধে। সংবাদমাধ্যমটির দাবি, পার্টিতে বলিউড তারকা হৃতিক রোশানের স্ত্রী সুজান খান ও জনপ্রিয় গায়ক বাদশাও ছিলেন। বাদশা দ্রুত পেছনের দরজা দিয়ে পালিয়ে যান বলেও জানানো হয়।

প্রসঙ্গত, ভারতের অন্য রাজ্যগুলির মতো নতুন ধরনের করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে কাঁপছে মহারাষ্ট্রও। সোমবার থেকেই রাজ্যে জারি হয়েছে নাইট কারফিউ।