বাংলাদেশ প্রতিবেদক: বাংলাদেশ সফরে তিনটি টি-টোয়েন্টি ও দুটি টেস্ট খেলতে পাকিস্তান দলের ঢাকায় আসার কথা ছিল ১৬ নভেম্বর। তবে বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠতে না পারায় কালই ঢাকায় আসছে পাকিস্তান। শনিবার সকাল আটটায় ঢাকায় পা রাখবে এবারের বিশ্বকাপের সেমিফাইনালিস্টরা।

বিমানবন্দর থেকে সরাসরি তাদেরকে হোটেল সোনারগাঁওয়ের জৈব সুরক্ষাবলয়ে প্রবেশ করতে হবে। বাংলাদেশ সরকারের অনুমতি সাপেক্ষে, করোনাকালের ক্রিকেটে এবারই প্রথম কোনো সফরকারী দলকে কোয়ারেন্টিন করতে হচ্ছে না। করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ হলে আর দুই ডোজ টিকা দেওয়া থাকলে সরাসরি শুরু হবে অনুশীলন।

এই দলের সঙ্গে আগামীকাল বাংলাদেশে আসছেন না অধিনায়ক বাবর আজম এবং অলরাউন্ডার শোয়েব মালিক। তারা চারদিনের ছুটি নিয়েছেন। সেই ছুটি শেষে ১৬ নভেম্বর দুজনে বাংলাদেশে আসবেন।

তিন দিন অনুশীলন করে ১৬ নভেম্বর জৈব সুরক্ষাবলয়ে প্রবেশ করার কথা ক্রিকেটারদের। ১৯, ২০ ও ২২ নভেম্বর মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে হবে পাকিস্তানের বিপক্ষে তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। শিশিরের কথা চিন্তা করে ম্যাচ তিনটিই হবে দুপুরে।

মুমিনুল হকের নেতৃত্বে বাংলাদেশ টেস্ট দল হোটেলে উঠবে ১৯ নভেম্বর। প্রথম টেস্টের ভেন্যু চট্টগ্রামে কন্ডিশনিং ক্যাম্প করবে মুমিনুলরা। ২৬ নভেম্বর চট্টগ্রামে প্রথম টেস্টের পর ৪ ডিসেম্বর মিরপুরে দুই দল খেলবে দ্বিতীয় টেস্ট।

টি-টোয়েন্টি সিরিজ অনুষ্ঠিত হবে মিরপুর শেরেবাংলায়। প্রথম টেস্ট চট্টগ্রামে আর দ্বিতীয় টেস্ট হবে মিরপুরে। সরকারের অনুমতি সাপেক্ষে এই সিরিজে গ্যালারিতে দর্শক দেখা যেতে পারে।

Previous articleসেনবাগের প্রতীক বরাদ্দ পেয়ে প্রার্থীদের প্রচারণা শুরু
Next articleচট্টগ্রামের সল্টগোলায় ফ্লাইওভারে ফাটল
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।