বাংলাদেশ প্রতিবেদক: চট্টগ্রাম নগরীর সল্টগোলা এলাকায় নির্মিত প্রথম ফ্লাইওভারে ফাটল দেখা দিয়েছে। তবে ফ্লাইওভারের মূল কাঠামোতে ফাটল ধরেনি। এ কারণে এতে বড় ধরনের ঝুঁকি দেখছেন না ফ্লাইওভারটির নির্মাণকারী সংস্থা সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের প্রকৌশলীরা। ফলে বন্ধ করা হয়নি গাড়ি চলাচল। ইতোমধ্যেই দুই দফায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন সওজের প্রকৌশলীরা।

চট্টগ্রাম বন্দরের পণ্যবাহী গাড়ি চলাচলের সুবিধার্থে ফ্লাইওভারটি নির্মাণ করা হয়। বন্দরের বিভিন্ন জেটির পণ্যবাহী গাড়ি ছাড়া যাত্রীবাহী পরিবহন চলাচল করে না।

সওজের চট্টগ্রাম অঞ্চলের নির্বাহী প্রকৌশলী পিন্টু চাকমা জানিয়েছেন, ফ্লাইওভারের মূল কাঠামোর বাইরে এই ফাটল দেখা দিয়েছে। যে অংশে ফাটল দেখা দিয়েছে সেটি মূল ফ্লাইওভারের সুরক্ষায় নির্মাণ করা হয়েছে। তাই এই ফাটল নিয়ে বড় ধরনের দুশ্চিন্তার কারণে নেই। এটি সংস্কার করে দেওয়া হবে। তারপরও ফাটলের কারণে কোনো ধরনের ঝুঁকি রয়েছে কিনা সে বিষয়ে আরো নিশ্চিত হতে ঢাকার একটি বিশেষজ্ঞ টিম ফাটলটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখবেন। তাদের পরামর্শ অনুযায়ী পরবর্তী করণীয় ঠিক করা হবে।

ফ্লাইওভারটি নির্মাণের পর ২০১২ সালের মার্চে এটি উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ১ দশমিক ৪২ কিলোমিটার দীর্ঘ ফ্লাইওভারটি চট্টগ্রাম বন্দরের নিউমুরিং কন্টেইনার টার্মিনাল (এনসিটি) এবং চিটাগাং কন্টেইনার টার্মিনালের (সিসিটি) সঙ্গে বন্দর টোল রোডকে সংযুক্ত করেছে। ফ্লাইওভারটি দিয়ে বিভিন্ন জেটি থেকে পণ্য নিয়ে টোল রোডের মাধ্যমে পণ্য পরিবহন করা যায়। এই টোল রোডটি বন্দর সংলগ্ন কাস্টমস ব্রিজ থেকে ফৌজদারহাট হয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত ২৫ অক্টোবর রাতে চট্টগ্রাম নগরীর বহদ্দারহাটে এম এ মান্নান ফ্লাইওভারের কালুরঘাটমুখী র‌্যাম্পের একটি পিলারে ফাটলের মতো দেখা দিয়েছিল। এ কারণে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল ফ্লাইওভারের ওই র‌্যাম্প দিয়ে যানবাহন চলাচল। অবশ্য একাধিক বিশেষজ্ঞ টিম পরিদর্শন করে নিশ্চিত হন এটি আসলে ফাটল নয়। ফলে ১৩ দিন পর গত রোববার এই র‌্যাম্পটি দিয়ে যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়।

Previous articleকাল বাংলাদেশে আসছে পাকিস্তান দল
Next articleসাপাহার মাছ বাজারে আজও চালু রয়েছে মান্দাতা আমলের দাঁড়ি পাল্লা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।