বাংলাদেশ ডেস্ক: এবারের বিশ্বকাপ আসরে টুর্নামেন্ট সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন অসি তারকা ডেভিড ওয়ার্নার। এতে অনেকটাই মনক্ষুণ্ণ পাকিস্তান দলের সমর্থকরা।

কারণ ৬ ইনিংসে ৪ হাফসেঞ্চুরিসহ ৬০.৬০ গড়ে পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজমের সংগ্রহ ৩০৩ রান। আর ডেভিড ওয়ার্নার ৭ ইনিংসে করেছেন ২৮৯ রান। তার গড় মাত্র ৪৮.১৬।

এ পরিসংখ্যান সামনে রেখে ওয়ার্নারের পুরস্কারকে আইসিসির পক্ষপাতমূলক আচরণ হিসেবে দেখছেন পাক সমর্থকরা। এ নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে তারা সমালোচনামুখর। আর সেই সমালোচনায় যোগ দিলেন পাকিস্তানের সাবেক গতি তারকা শোয়েব আখতারও।

তার মতে, বাবর আজমের সাথে অন্যায় করেছে আইসিসি। এবারের বিশ্বকাপ সেরা বাবর আজমই। ওয়ার্নারকে প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্ট দেয়ায় টুইটারে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন শোয়েব।

লেখেন ‘বাবর আজমের প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্ট হওয়ার অপেক্ষায় ছিলাম। কোনো সন্দেহ নেই, অন্যায় সিদ্ধান্ত (ওয়ার্নারের সেরা হওয়া)।’

শোয়েবের এমন অভিযোগের পর প্রশ্ন উঠতেই পারে যে, দল ফাইনালে উঠতে পারেনি সেখান থেকে সিরিজ সেরা কীভাবে বেছে নেয়া যায়!

সেই প্রশ্নের জবাব দিচ্ছে ইতিহাস। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে না উঠেও টুর্নামেন্টের সেরা হওয়ার নজির আছে। ২০১২ বিশ্বকাপে শেন ওয়াটসন ও ২০১৬ সালে বিরাট কোহলির এ কীর্তি আছে। ২০১২ বিশ্বকাপে ১৫০ স্ট্রাইক রেটে সর্বোচ্চ রান ছিল ওয়াটসনের। বোলিংয়েও বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি ছিলেন ওয়াটসন। তার দল ফাইনালে না উঠলেও প্লেয়ার অব দ্য টুর্নামেন্ট হন তিনি।

Previous articleভুল প্রশ্নপত্রে একই বিষয়ের দু’বার পরীক্ষা নিলেন কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ
Next articleডিজিটাল যুগ নতুন প্রজন্মের জন্য স্বর্ণালী সময়: টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।