বাংলাদেশ ডেস্ক: আইসিসি টেস্ট র‌্যাংকিংয়ে ব্যাটিং তালিকায় ক্যারিয়ার সেরা অবস্থানে পৌঁছেছেন বাংলাদেশের উইকেটরক্ষক লিটন দাস। ১৭ ধাপ এগিয়ে ১৫তম স্থানে উঠে এসেছেন লিটন। তার রেটিং ৬৮৩। এটিই তার ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাংকিং।

বল হাতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট জয়ের নায়ক বাংলাদেশের পেসার এবাদত হোসেনেরও র‌্যাংকিংয়ে উন্নতি হয়েছে। লিটনের মত ১৭ ধাপ এগিয়েছেন এবাদত। র‌্যাংকিংয়ে ৮৮তমস্থানে আছেন এবাদত। তার রেটিং ২২২। এটি তার ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাংকিং।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ, অ্যাশেজের চতুর্থ টেস্ট ও ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় টেস্টের পারফরমেন্সের উপর ভিত্তি করে র‌্যাংকিংয়ের সাপ্তাহিক হালনাগাদ প্রকাশ করেছে আইসিসি।

লিটন ছাড়াও, বাংলাদেশের পক্ষে ব্যাটারদের র‌্যাংকিংয়ে উন্নতি হয়েছে অধিনায়ক মোমিনুল হক ও নাজমুল হোসেন শান্তর। আট ধাপ এগিয়ে মোমিনুল ৩৭ ও ২১ ধাপ এগিয়ে শান্ত ৮৭তমস্থানে আছেন।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৯৬ রান করেন লিটন। ১টি করে সেঞ্চুরি ও হাফ-সেঞ্চুরি ছিলো। মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে ৮৬ ও ক্রাইস্টচার্চে ৮ ও ১০২ রানের ইনিংস খেলেছিলেন লিটন। দলের পক্ষে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান ছিলো মোমিনুলের। ১টি হাফ-সেঞ্চুরিতে ১৩৮ রান করেন তিনি। শান্ত করেন ১১৪ রান। তারও ১টি হাফ-সেঞ্চুরি ছিলো।

বাংলাদেশ বোলারদের মধ্যে এবাদত প্রথম টেস্টে ১ ও ৬ উইকেট নেন। দ্বিতীয় ইনিংসে এবাদতের ৪৬ রানে ৬ উইকেট, বাংলাদেশকে ঐতিহাসিক জয়ের স্বাদ দেয়। দ্বিতীয় ম্যাচে ২ উইকেট নেন। তাই সিরিজে নিউজিল্যান্ডের ট্রেন্ট বোল্টের সাথে সর্বোচ্চ ৯ উইকেট শিকারী এবাদত।

সিরিজের বাংলাদেশের পক্ষে ৫ উইকেট নেন শরিফুল। তাই ৩৪ ধাপ এগিয়ে ১০৪তম স্থানে তিনি।

বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজে ৮ উইকেট নেন নিউজিল্যান্ডের পেসার কাইল জেমিসন। যার স্বীকৃতি হিসেবে ৮২৫ রেটিং নিয়ে তৃতীয়স্থানে উঠে এসেছেন তিনি। এটি তার ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাংকিং। প্রথম টেস্টে ২ উইকেট নিলেও, দ্বিতীয়টিতে ৬ উইকেট নেন তিনি। ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে টেস্ট অভিষেকের পর থেকে নিয়মিত পারফরমেন্স করছেন জেমিসন। ১২ টেস্টে ৬০ উইকেট ঝুলিতে আছে তার।

সিরিজে ৯ উইকেট নিয়ে তিন ধাপ এগিয়ে ১২তম স্থানে বোল্ট।

ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে ২৬৭ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলেন নিউজিল্যান্ডের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক টম ল্যাথাম। তাই দুই ধাপ এগিয়ে ১১তমস্থানে উঠেছেন তিনি। বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই টেস্টেই ১টি করে সেঞ্চুরি হাকান ডেভন কনওয়ে। সিরিজের ২৪৪ রান তুলে ১৮ ধাপ এগিয়ে ২৯তম স্থানে ৫টি টেস্ট খেলা কনওয়ে।

বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় জানান নিউজিল্যান্ডের রস টেইলর। ৬১৭ রেটিং নিয়ে ২৮তমস্থানে থেকে ক্যারিয়ার শেষ করলেন টেইলর। ২০১৩ সালের ডিসেম্বরে ৮৭১ রেটিং নিয়ে চতুর্থস্থানে উঠেছিলেন টেইলর। সেটিই ছিলো তার ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাংকিং।

এদিকে, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অ্যাশেজের চতুর্থ টেস্টের দুই ইনিংসে ১৩৭ ও অপরাজিত ১০১ রান করেন অস্ট্রেলিয়ার উসমান খাজা। তাই র‌্যাংকিংয়ে ২৬তম স্থানে আছেন খাজা।

Previous articleকরোনার টিকা নিতে ঈশ্বরদী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বেসামাল ভীড়
Next articleইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে জোর করে স্ট্যাম্পে বৃদ্ধার টিপসই নেয়া ও হত্যার হুমকির অভিযোগ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।