সোমবার, জুন ২৪, ২০২৪
Homeখেলাধুলাটি২০ বিশ্বকাপ : গুছিয়ে নেওয়ার শেষ সুযোগ আজ

টি২০ বিশ্বকাপ : গুছিয়ে নেওয়ার শেষ সুযোগ আজ

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: বাংলাদেশ দলের কাছে যুক্তরাষ্ট্র সফর এখন পর্যন্ত হতাশার। স্বাগতিকদের কাছে সিরিজ হারের দুঃস্বপ্ন তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে। ক্রিকেটাররা সাংবাদিকদের সামনে পড়লেই বিব্রতকর প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের সমালোচনা তো রয়েছেই। ডালাসের গ্র্যান্ড প্রেইরি স্টেডিয়ামে প্রথম গা-গরমের ম্যাচে যুক্তরাষ্ট্রকে বড় ব্যবধানে হারাতে পারলে বলার মতো কিছু রসদ নিয়ে নিউইয়র্কে যেতে পারতেন নাজমুল হোসেন শান্তরা। বৈরী আবহাওয়া সে সুযোগ দেয়নি বাংলাদেশকে। তাই বিশ্বকাপের জন্য উজ্জীবিত হওয়ার শেষ সুযোগ ভারতের সঙ্গে অনুষ্ঠেয় আজকের প্রস্তুতি ম্যাচ।

শক্তিশালী ভারতকে হারাতে পারলে টুর্নামেন্টজুড়েই ভালো খেলার সম্ভাবনা বাড়বে। লড়াই করে হারলেও খেলোয়াড়দের মনোবল চাঙা থাকবে। নাজমুল হোসেন শান্তরা তাই চেষ্টা করবেন সেরা ক্রিকেট খেলে ম্যাচ জিততে।

গা-গরমের ম্যাচ হলেও বিশ্বকাপ ম্যাচের চেয়ে কম গুরুত্ব পাচ্ছে না বাংলাদেশ-ভারতের খেলা। ভেন্যু নিউইয়র্ক হওয়ায় প্রচুর দর্শক সমাগম হবে। উৎসবমুখর একটা পরিবেশ তৈরিতে চেষ্টা রয়েছে আয়োজকদের দিক থেকে। যদিও সমর্থকদের চেয়েও এ ম্যাচের গুরুত্ব বেশি আইসিসির কাছে। কারণ এই ম্যাচ দিয়ে নাসাউ কাউন্টি স্টেডিয়ামের উদ্বোধন আজ। ৩৪ হাজার দর্শক ধারণক্ষমতাসম্পন্ন নাসাউ স্টেডিয়ামটি দর্শনীয়। এই স্টেডিয়ামে পরীক্ষা-নিরীক্ষার শেষ মহড়া টাইগারদের। বিশ্বকাপের একাদশ বেছে নেওয়ার শেষ সুযোগও।

বিশ্বকাপের আগে ভারতকে পাওয়ায় একদিক থেকে লাভই হয়েছে। কারণ ভারতের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ক্রিকেট খেলে বাংলাদেশ। ২০১৬ সাল থেকে টি২০ ক্রিকেটে তীব্র লড়াই হচ্ছে দু’দলের। এশিয়া কাপের ফাইনালে রোহিত শর্মাদের কাছে হেরে গেলেও হৃদয় জিতে নিয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহরা। ষোলোর টি২০ বিশ্বকাপে জিততে জিততে হেরে যাওয়া ছিল হৃদয়ভাঙার গল্প। স্মৃতির দর্পণে আজও ভেসে ওঠে ২০১৭ সালের নিদাহাস ট্রফির ফাইনাল ম্যাচটি। রোহিত শর্মার সেই ভারতের সঙ্গে আজ বিশ্বকাপ প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে নাজমুল হোসেন শান্তর বাংলাদেশ। এই ম্যাচের জয়-পরাজয় বিশ্বকাপের পয়েন্ট টেবিলে কোনো প্রভাব ফেলবে না। ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স রেকর্ডবুকে লিপিবদ্ধ না হলেও আত্মবিশ্বাস বাড়াবে। এ মুহূর্তে আত্মবিশ্বাস জাগানো পারফরম্যান্স খুবই প্রয়োজন বাংলাদেশ দলের জন্য। বিশেষ করে ব্যাটারদের ভালো খেলা জরুরি। কারণ ওয়েস্ট ইন্ডিজ-যুক্তরাষ্ট্রে অনুষ্ঠেয় বিশ্বকাপে সফল হতে হলে ব্যাটারদের ভালো খেলতে হবে।

অন্যদিকে ভারতের খেলোয়াড়রা টি২০ খেলার মধ্যেই ছিলেন। দুই মাসের বেশি সময় ধরে দেশের মাটিতে আইপিএল হয়েছে। খেলোয়াড়রা ভিন্ন ভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজিতে খেলার অভিজ্ঞতা নিয়ে গেছেন যুক্তরাষ্ট্রে। যদিও বিশ্বকাপের আগে দল হিসেবে প্রথম ম্যাচ খেলবে তারা। গা-গরমের ম্যাচ হওয়ায় বিরাট কোহলি খেলছেন না। বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে সিনিয়রদের কাউকে কাউকে। এর পরও একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচটি জিততে চাইবেন রোহিত শর্মারা। কারণ বাংলাদেশের মতো ভারতেরও লক্ষ্য থাকবে জয়ের ছন্দ নিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করা। ম্যাচটি হারলে খুব যে ক্ষতি হয়ে যাবে, তা নয়।

বিশ্বকাপে ভারত খেলবে বড় দলের মতো পেশাদারিত্ব দিয়ে। বৈশ্বিক ক্রিকেটে যাদের ভালো খেলার অভিজ্ঞতা অনেক। টি২০ ক্রিকেটে বাংলাদেশের রেকর্ড উল্টো। বৈশ্বিক বিশ্বকাপে তেমন ভালো করতে পারেনি। ২০২২ সালে নেদারল্যান্ডস ও জিম্বাবুয়েকে হারানোই সেরা সাফল্য টাইগার বাহিনীর। তাই প্রস্তুতি থেকে জয় নিয়ে ডালাসে যেতে পারলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ভালো করার সম্ভাবনা বেড়ে যাবে।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments