কাগজ প্রতিনিধি: ঢাকার কেরানীগঞ্জ থেকে নিখোঁজ হওয়ার সাতদিন পর রাসেল নামে এক যুবকের অর্ধগলিত লাশ বরিশালে উদ্ধার হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে বরিশাল শহরের চরকাউয়া এলাকার কীর্তনখোলা নদী থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করে পুলিশ।
ওই যুবকের বয়স ৩০ থেকে ৩৫ হতে পারে। তাছাড়া মৃতদেহের পরনে থাকা প্যান্টের পকেটে একটি মানিব্যাগ থেকে ২ হাজার ৮৮৪ টাকা, মোবাইল ফোন, দুটি সিমকার্ড, মেমোরি কার্ড ও বিভিন্ন কাগজপত্র উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
বরিশাল সদর নৌপুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বেল্লাল হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, সকালে চাঁদমারী খেয়াঘাটের লোকজন লঞ্চঘাটের দিক থেকে মৃতদেহটি ভেসে আসতে দেখে নৌ থানায় খবর দেয়। পরে আমাদের টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে কোস্টগার্ডের সহযোগিতায় মৃতদেহ উদ্ধার করে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।
কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম বলেন, মৃতদেহের পকেট থেকে পাওয়া কাগজপত্রের মধ্যে একটি মোবাইল নম্বর পাওয়া যায়। ওই নম্বরে কল করা হলে অপরপ্রান্তে থাকা এক ব্যক্তি মৃতদেহের পরিচয় শনাক্ত করেন।
ভাগ্নে পরিচয় দেয়া ব্যক্তি জানিয়েছেন উদ্ধার হওয়া মৃতদেহের নাম রাসেল সরদার। তিনি ঢাকার কেরানীগঞ্জের শুক্কুর আলী সরদারের ছেলে। তার শ্বশুর বাড়ি বরিশাল শহরের বেলতলায়। গত সাতদিন আগে কেরানীগঞ্জের বাসা থেকে বের হন রাসেল। এরপর থেকেই তিনি নিখোঁজ ছিলেন।
তিনি আরও বলেন, অনেকদিন পানিতে থাকায় লাশ পচে গলতে শুরু করে। তাই কিভাবে তার মৃত্যু হয়েছে তা বলা সম্ভব হচ্ছে না। তাছাড়া শরীরে আঘাত বা জখমও দেখা যাচ্ছে না। ময়নাতদন্তের পরে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। মৃতদেহ শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি তার স্বজনদের বরিশালে আসার জন্য বলা হয়েছে।

Previous articleস্ত্রীর আত্মহত্যার ৫ দিন পর স্বামীর আত্মহত্যা
Next articleনারায়ণগঞ্জে দফায় দফায় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ৩ গ্রাম রণক্ষেত্র
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।