কাগজ প্রতিবেদক: বুড়িগঙ্গার সদরঘাটে লঞ্চের ধাক্কায় ডুবে যাওয়া নৌকার ৬ যাত্রী নিখোঁজের পর মাহীর (৬) নামে এক শিশুসহ আরও ৪ জনের লাশ উদ্ধার করেছে ডুবুরিরা।  আজ শনিবার সকাল ৮টার দিকে অভিযান শুরুর পর লাশগুলো উদ্ধার করা হয়।
এ নিয়ে ৫ জনের লাশ উদ্ধার করা হলো। এর আগে শুক্রবার দুপুরের দিকে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের হাসনাবাদ এলাকায় নদী থেকে জামশেদা (২০) নামে এক নারীর ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করা হয়।
এদিকে নিখোঁজ একজনের খোঁজে শনিবার তৃতীয় দিনের মতো নদীতে তল্লাশি চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিস, বিআইডব্লিউটিএ ও নৌ পুলিশ।
নৌ পুলিশের সদরঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুর রাজ্জাক বলেন, ‘শনিবার সকাল ৮টার দিকে আহসান মঞ্জিল জাদুঘর বরাবর নদী থেকে মাহীর নামে শিশুটির লাশ পাওয়া যায়।
এর আগে গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বুড়িগঙ্গার সদরঘাটে সুরভী-৭ নামে একটি লঞ্চের ধাক্কায় নৌকা ডুবে একই পরিবারের ৬ জন নিখোঁজ হয়েছেন। এ সময় লঞ্চের পাখার আঘাতে শাহজালাল মিয়া (৩৫) নামে ওই পরিবারের আরেক ব্যক্তির দুই পা বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।