বিজিবির সাথে গোলাগুলিতে অজ্ঞাত দুই রোহিঙ্গা নিহত, ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার

কায়সার হামিদ মানিক: কক্সবাজারের টেকনাফে নাফনদীর কিনারায় মিয়ানমার হতে ইয়াবার চালান নিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টাকালে বিজিবি জওয়ানদের সাথে গোলাগুলিতে ৩জন বিজিবি সদস্য আহত হয়। ঘটনাস্থল হতে ইয়াবা, লম্বা বন্দুক, বুলেট ও কিরিচসহ গুলিবিদ্ধ অজ্ঞাত দুই রোহিঙ্গা মাদক কারারীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।
বিজিবি জানায়, ২৭ সেপ্টেম্বর ভোররাত দেড়টার দিকে টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের হ্নীলা বিওপির একটি টহল দল নিয়মিত দায়িত্ব পালনকালীন মিয়ানমার হতে আসা লোক বোঝাই একটি নৌকা কিনারায় এলে উক্ত নৌকা হতে দুই ব্যক্তি নেমে দিয়ে নিরাপদ অবস্থানে চলে যায়। কাঁদায় নেমে যাওয়া ব্যক্তিদের ধরার জন্য বিজিবি জওয়ানেরা চেষ্টা করলে নৌকা হতে বিজিবিকে লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ করে। এসময় বিজিবির দায়িত্বরত ৩জন সদস্য আহত হয়। তখন বিজিবি সদস্যরা নিরুপায় হয়ে সরকারী সম্পদ এবং জীবন রক্ষার্থে পাল্টা ১০/১৫ মিনিট গুলিবর্ষণ করে। কিছুক্ষণ পর পরিস্থিতি শান্ত হতে নাফনদীর কিনারায় তল্লাশী চালিয়ে ৭০হাজার ইয়াবা, ১টি দেশীয় তৈরী লম্বা বন্দুক. ২রাউন্ড বুলেট ও ১টি ধারালো কিরিচসহ গুলিবিদ্ধ অজ্ঞাত দুই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে।
আহত বিজিবি সদস্য ও গুলিবিদ্ধ দুই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য উপজেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। সেখানে আহত বিজিবি সদস্যরা চিকিৎসাধীন থাকলেও গুলিবিদ্ধ অজ্ঞাত দুই ব্যক্তিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা মারা যায়।
টেকনাফ ২বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান (পিএসসি) উপরোক্ত ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এই ব্যাপারে তদন্ত স্বাপেক্ষে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।