ভারতের সাথে চুক্তি বাতিলের দাবিতে নীলফামারীতে কমিউনিস্ট পার্টির বিক্ষোভ সমাবেশ

মহিনুল ইসলাম সুজন: ভারতের সঙ্গে জাতীয় স্বার্থ বিরোধী অসম চুক্তি বাতিল ও ছাত্র রাজনীতিতে ছাত্রলীগের কর্মকা- নিষিদ্ধ করনের দাবিতে নীলফামারীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি। শনিবার(অক্টোবর) দুপুরে জেলা শহরের কালিবাড়ী মোড়স্থ দলীয় কার্যালয় থেকে লালপতাকাসহ মিছিলটি বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে চৌরঙ্গী মোড়ে সমাবেশে মিলিত হয়। কমিউনিস্ট পার্টি নীলফামারী জেলা শাখার আয়োজনে জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি আতিয়ার রহমানের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন,সাধারণ সম্পাদক শ্রীদাম দাস, দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আলতাফ হোসাইন, জেলা কমিটির সদস্য ম.আ. শামিম, মাহবুব ইসলাম, প্রিন্স চাকলাদার, জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি কমল সরকার প্রমূখ। বক্তারা এ সময়ে দাবি করে বলেন, ‘জনগণের ভোটাধিকারকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে নৈশ্যকালীন নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় এসে আওয়ামী লীগ লুটপাটের মহোৎসব করছে। ক্ষমতায় পাকাপোক্ত করে বসতে জাতীয় স্বার্থ বিকিয়ে দিয়ে ভারতের সঙ্গে অসম চুক্তি করেছে লুটেরা সরকার। তিস্তাসহ অভিন্ন নদী সমূহের পানির ন্যায্য হিস্যা আদায়ে ব্যর্থ হয়েও ফেনী নদীর পানি ভারতকে প্রদানসহ বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বের হুমকী স্বরুপ হওয়ার পরেও দেশের সমুদ্র উপকূলে ভারতের ২০ রাডার বসাতে ভারতের সঙ্গে চুক্তি করেছে তারা।’ ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগকে দানব উল্লেখ করে বক্তরা বলেন, ‘ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদেও হাতে বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদের নির্মম হত্যাকা-ের ভেতর দিয়ে সরকারি দলের ফ্যাসিবাদী আক্রমনের দানবী রূপ ফুটে উঠেছে।’ সরকারকে হুমকি দিয়ে কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃবৃন্দ বলেন, ‘দ্রুত জাতীয় স্বার্থ বিরোধী অসম চুক্তি বাতিল, ক্যাসিনো ক্রাইম সি-িকেট ও লুটেরা চক্রের উচ্ছেদ এবং মেধাবী ছাত্র আবরার হত্যার বিচার করে ছাত্রলীগকে ছাত্র রাজনীতি থেকে নিষিদ্ধ করুন। নইলে দেশের জনগণ ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুললে কোথাও পালানোর রাস্তা পাবেন না।’