জলঢাকায় নদীতে বালু উত্তোলন: গর্তে পড়ে দুই শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু

মহিনুল ইসলাম সুজন: নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার বুড়ি তিস্তা নদীতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের বোমা মেশিনের গর্তে পড়ে দুই শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। শনিবার(২৬ অক্টেবর)বিকেলে উপজেলার শৌলমারী ইউনিয়নের দুই নম্বর ওয়ার্ডের গোপালঝাড় এলাকায় এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে।এ ঘটনায় এলাকা জুড়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।নিহত দুই শিশু হলো গোপালঝাড় চেয়ারম্যানপাড়া গ্রামের আব্দুল কাইয়ুমের মেয়ে সিতু(৭) ও একই গ্রামের মোসারফের মেয়ে মীম(৭)। তারা দুইজনেই ওই গ্রামের বসরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশু শ্রেনীর ছাত্রী ছিল। এলাকাবাসীর অভিযোগ, মজিদুল নামের এক বালু ব্যবসায়ী দীর্ঘদিন ধরে বুড়ি তিস্তা নদীতে বোমা মেশিনের মাধ্যমে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করে আসছিলেন। ঘটনার দিন ওই দুই শিশু বালু উত্তোলনের মেশিনের ধারে নদীতে গোসল করতে নামে। এ সময় সিতু মেয়েটি বালু উত্তোলনে গর্তে পড়ে গেলে অপর শিশু মীম সেই সহপাঠীকে উদ্ধার করার চেস্টা করলে সেও নদীতে পড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলেই দুজনে মারা যায়। এলাকার ইউপি সদস্য সিরাজুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বিষয়টি আমরা উপজেলা প্রশাসন ও থানা পুলিশের কাছে অবগত করে বিচারদাবি করেছি। শৌলমারী ইউপি চেয়ারম্যান প্রাণজিৎ রায় পলাশ বলেন, দুর্ঘটনার সংবাদ পেয়ে আমি তাৎক্ষনিক গ্রাম পুলিশ ও ইউপি সদস্যকে ঘটনাস্থল থেকে অবৈধ বালু উত্তোলনের সকল সরঞ্জামাদি জব্দ করার নির্দেশ দিয়েছি। পরে নিহতদের পরিবারের কোনো অভিযোগ না থাকায় তাদের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।