মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২৪
Homeসারাবাংলাদু’বছর আগের প্রশ্নে এসএসসি পরীক্ষা, কেন্দ্র সচিব বহিষ্কার

দু’বছর আগের প্রশ্নে এসএসসি পরীক্ষা, কেন্দ্র সচিব বহিষ্কার

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে উপজেলার আফতাবগঞ্জ বিইউ উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে চলতি মাধ্যমিক সার্টিফিকেট পরীক্ষায় (এসএসসি) পুরোনো প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা নেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় কেন্দ্র সচিব আবদুল মান্নানকে বহিষ্কার করেছেন উপজেলা পরীক্ষা কমিটির সভাপতি ইউএনও নাজমুন নাহার।
সোমবার বাংলা প্রথম পত্রের পরীক্ষায় এ ঘটনায় ঘটে।

আফতাবগঞ্জ বিইউ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল মান্নান জানান, অনিয়মিত শিক্ষার্থীদের বাংলা প্রথমপত্রের বহুনির্বাচনী পরীক্ষায় একটি কক্ষে ভুল করে চলতি বছরের প্রশ্নপত্রের সঙ্গে ২০১৮ সালের প্রশ্নপত্র সরবরাহ করা হয়। কক্ষ পরিদর্শকরাও অসচেতনভাবে পরীক্ষার্থীদের মাঝে সেই প্রশ্নপত্র সরবরাহ করেন। পরীক্ষার্থীরাও বিষয়টি লক্ষ্য না করেই পুরোনো প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা শেষ করে। পরবর্তীতে বাড়িতে গিয়ে প্রশ্নপত্রে ২০১৮ সালের বিষয়টি দেখতে পায়। এরপর পরীক্ষার্থী এবং অভিভাবকরা সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকদের সঙ্গে যোগাযোগ করে।

নবাবগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. তোজাম্মেল হোসেন জানান, বিভিন্ন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকরা তাদের শিক্ষার্থীদের পুরোনো প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা নেয়ার বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ দেন। পরে বিষয়টি নিয়ে ইউএনও’র সঙ্গে যোগাযোগ করেন। আনুমানিক ১৫ জন শিক্ষার্থী পুরোনো প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা দিয়েছেন।

ইউএনও নাজমুন নাহার জানান, বিষয়টি নিয়ে তিনি বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের সঙ্গে কথা বলেছেন। পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তাকে জানিয়েছেন যে, পরীক্ষার্থীরা যে প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা দিয়েছে, সেই প্রশ্নপত্রেই খাতা মূল্যায়ন হবে। এতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। বিষয়টি পরীক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের জানানো হয়েছে। এ ঘটনায় কেন্দ্র সচিব আফতাবগঞ্জ বিইউ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল মান্নানকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments