টাঙ্গাইলে ১০ম শ্রেণির ছাত্রের হাত ধরে পালালো নবম শ্রেণির ছাত্রী

আব্দুল লতিফ তালুকদার: প্রেম মানে না বাঁধা, মানে না বয়স। তারই প্রতিফলন ঘটিয়েছে টাঙ্গাইলের সখিপুর উপজেলার দড়িয়াপুর এসএ উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র ইমন ও নবম শ্রেণির এক ছাত্রী। বেশ কয়েকদিন ধরে তাদের খোঁজ না পাওয়ায় পরবর্তীতে জানা যায় প্রেমের টানে তারা একে অপরের হাত ধরে পালিয়ে গেছে। গত ৩০ শে জানুয়ারি সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার দাড়িয়াপুর গ্রামে।

এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর ফুফু বুলবুলি বাদী হয়ে ইমনকে আসামী করে সখীপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তবে এখনো পালিয়ে যাওয়া ওই ছাত্র-ছাত্রী কোন খোঁজ পায়নি পুলিশ।

জানা গেছে, উপজেলার দাড়িয়াপুর গ্রামের আলোর চালা গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে ইমন এ বছর দাড়িয়াপুর এসএ উচ্চ বিদ্যালয়ে টেষ্ট পরীক্ষায় অকৃতকার্য হয়। ওই বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ওই ছাত্রী একই গ্রামের শফিকুলের মেয়ে। একই বিদ্যালয়ে লেখাপড়ার সুবাধে বছর দুয়েক আগে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। নিয়মিত ফোনালাপ ও দেখা সাক্ষাতের মাধ্যমে চলতে থাকে তাদের প্রেম। প্রেমের সম্পর্ক বিয়ের সম্পর্কে রুপ দিতে গত ৩০ শে জানুয়ারি সকলের চোখ ফাঁকি দিয়ে সুযোগ বুঝে সন্ধ্যায় পালিয়ে যায়।

এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর ফুফু বুলবুলি বাদী হয়ে ইমনকে একমাত্র আসামী করে সখীপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

এ বিষয়ে সখীপুর থানার এসআই ও তদন্তকারী কর্মকর্তা ওমর ফারুক বলেন, উভয়ের বাড়ি পরিদর্শন করা হয়েছে। পালিয়ে যাওয়া অপ্রাপ্ত বয়স্ক ছাত্র-ছাত্রীকে খুঁজে বের করার জন্য চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।