টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৩ যুবক নিহত, অস্ত্র ও ইয়াবা উদ্ধার : আহত ৫ পুলিশ

কায়সার হামিদ মানিক: কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’তিন যুবক নিহত হয়েছেন। এ সময় দেশী-বিদেশী ১৮টি অস্ত্র ও বিপুল পরিমাণ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার (৬ মে) ভোরে টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের রঙ্গিখালী এলাকার গাজী পাহাড়ে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- রঙ্গিখালী মাদ্রাসা পাড়ার মৃত আব্দুল মজিদ ওরফে ভুলাইয়্যা বইদ্যের পুত্র নুরুল আলম (৪০), ছৈয়দ আলম (৩৫) ও শব্বির আহমদের পুত্র আব্দুল মোনাফ (২০)।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার ভোরে রঙ্গিখালীর গাজী পাহাড়ে ডাকাতের আস্তানায় অভিযানে যায় পুলিশ। ডাকাত দলের আস্তানা ঘেরাও করে ফেললে তারা পুলিশের ওপর গুলিবর্ষণ করতে থাকে।

এতে পুলিশের চার কর্মকর্তাসহ পাঁচজন আহত হন। পুলিশও পাল্টা গুলিবর্ষণ করতে থাকে। এ সময় উভয়পক্ষে শতাধিক রাউন্ড গুলিবিনিময় হয়।

পরে আহত পুলিশ সদস্য এবং উদ্ধারকৃত সন্ত্রাসীদের চিকিৎসার জন্য টেকনাফ উপজেলা সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে আহত পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দিয়ে গুলিবিদ্ধ সন্ত্রাসীদের আরো উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়। সেখানে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

প্রদীপ কুমার দাশ আরো বলেন, এই ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্ত স্বাপেক্ষে পৃথক মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।