আইফোন নিয়ে দ্বন্দ্ব : সেপটিক ট্যাংক থেকে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ফেনী শহরের পাঠানবাড়ী সড়কের শফিকুর রহমান সড়কের তাসফিয়া ভবনের সেপটিক ট্যাংক থেকে শনিবার রাত ১টার দিকে এক প্রকৌশল শিক্ষার্থীর অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত ইউনুস বাবু (২৩) সোনাগাজীর বগাদানা ইউনিয়নের পাইকপাড়া এলাকার বাসিন্দা ও চীনের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী।

নিহত ইউনুছ চীনের আহোট বিশ্ববিদ্যালয়ে বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়াশোনা করছিলেন। তিনি শহরের রামপুর শাহীন একাডেমী এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। তার বাড়ি জেলার সোনাগাজী উপজেলার তাকিয়া বাজার এলাকার পাইকপাড়া গ্রামে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, গত শুক্রবার সকালে ওই ভবন থেকে ফুলগাজী উপজেলার আনন্দপুর ইউনিয়নের আমান উদ্দিন ভূঁঞা বাড়ির বাসিন্দা মো. শাহরিয়ারকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাকেও গলাকেটে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল। তার দেয়া তথ্যমতে বাবুর লাশ উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার বাবুর বন্ধু শাহরিয়ার বাবুকে ডেকে এনেছিল। হত্যাকাণ্ডের সাথে ওই বাড়ির কেয়ারটেকার শাহীনসহ একাধিক দুর্বৃত্ত জড়িত বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় ভবনটির কেয়ারটেকার মো. শাহীনকে আটক করা হয়েছে। বাবুর ব্যবহৃত আইফোনকে কেন্দ্র করে এই হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ফেনী মডেল থানার ওসি (তদন্ত) ওমর হায়দার জানান, খবর পেয়ে পুলিশ রাত সাড়ে ১০টার দিকে ওই ভবনে গিয়ে সেপটিক ট্যাংকে লাশ দেখতে পায়। এরপর জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। রাত ১টার দিকে লাশটি উদ্ধার করে ফেনী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে সেপটিক ট্যাংকে থাকায় লাশে পচন ধরে যায়। ঘটনার রহস্য উদঘাটনে পুলিশ কাজ করছে।

নিহতের মা রেজিয়া বেগম জানান, নিহত বাবু চীনে বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে পড়তেন। করোনাকালীন সময়ে তিনি দেশে এসেছেন।