জয়নাল আবেদীন: করোনাকালীন খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির (ওএমএস) চাল কলোবাজারে বিক্রির অভিযোগে রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার ভেন্ডাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মঞ্জুর হোসেন মন্ডলকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৩। সোমবার সকালে ইউনিয়নের চাতাল বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে পীরগঞ্জ থানায় হস্তান্তর করা হলে বিকেলে চাল চুরির মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে পুলিশ আদালতে সোর্পদ করে । এরপর আদালত তাকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। পীরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সরেস চন্দ্র রায় বলেন, চাল চুরির মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে।পুলিশ সূত্র জানায়, গত বছরের ৮ এপ্রিল দিনগত গভীর রাতে ভেন্ডাবাড়ি থেকে গাইবান্ধার সাদুল্লাহপুরে পাচারের সময় গুঞ্জিপাড়া নামক স্থান থেকে সরকারি খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির (ওএমএস) ৯০ বস্তা চালসহ একটি মাহেন্দ্র আটক করে পুলিশ। এসময় উপজেলার টুকুরিয়া ইউনিয়নের গুপিনাথপু গ্রামের জমশের আলীর ছেলে মাহেন্দ্রচালক ইসমাইল হোসেন ও হেলপার মহেশপুর গ্রামের সেকেন্দার আলীর ছেলে রিয়াদ এবং ভেন্ডাবাড়ি গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে জাহাঙ্গীর আলমকে আটক করা হয়।অবৈধ উপায়ে সরকারি চাল আত্মসাতের অভিযোগ এনে পীরগঞ্জ উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা আব্দুর রশীদ বাদী হয়ে পরদিন ৯ এপ্রিল রাতে থানায় মামলা করেন। মামলায় সাতজন এজাহারভুক্তসহ আরও অজ্ঞাত চারজনকে আসামি করা হয়।এ ব্যাপারে দায়ের হওয়া মামলার তদন্তে ঘটনার হোতা হিসাবে ওই ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মঞ্জুর হোসেন মন্ডলের নাম উঠে আসে। এদিকে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ভেন্ডাবাড়ি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং ওই ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মঞ্জুর হোসেন মন্ডলের বাবা হলেন ওএমএস ডিলার মনোয়ার হোসেন মন্ডল।

Previous articleশার্শার বাগআঁচড়ায় সিভিল সার্জনের ঝটিকা অভিযান, ৩ টি ক্লিনিক সময়িক বন্ধ
Next articleরংপুর র‌্যাব-১৩‘র শিক্ষা সহায়তা প্রদান
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।