আবুল কালাম আজাদ: টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে পরকিয়া প্রেমের কারনে স্বামীকে হত্যা করে লাশ গুম করার ঘটনায় স্ত্রী সহ প্রেমিককে আটক করেছে পুলিশ,সেপটিক ট্যাংক থেকে লাশ উদ্ধার।। মঙ্গলবার সকালে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার এলেঙ্গা পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের বাঁশি গ্রামের নিজ বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে মুল্লুক চাঁন নামের এক দিনমজুরের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত দিনমজুর একই গ্রামের মোন্তাজ আলীর ছেলে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী রেজিয়া (৩৫) সহ সন্দেহভাজন প্রেমিক আ.হালিমকে আটক করেছে পুলিশ। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রতিদিন ভোরে বের হয়ে এলাকায় মাটি কাটার শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন নিহত দিনমজুর। শনিবার দিনগত রাতে বাড়িতে না ফেরায় খোঁজ করে কোথাও না পেয়ে রোববার বিকালে কালিহাতী থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেন নিহতের ছোট ভাই রুপচাঁন। বাড়ির অন্য সকলকে স্ত্রী রেজিয়া জানায় শনিবার ভোরে কাজে বের হয়ে বাড়ি ফেরেননি দিনমজুর মুল্লুক চাঁন। রোববার রাতে বাড়ির সকলকে জানায় কে বা কারা হত্যা করে লাশ সেপটিক ট্যাংকে ফেলে রেখেছে, একপর্যায়ে স্ত্রী রেজিয়া জানান তিনি নিজে গলা কেটে ও বুকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করেছেন। পরে খবর দিলে সোমবার দিনগত রাতেই তাকে আটক করে নিয়ে যায় পুলিশ। এসময় পুলিশ হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ছুরি, বালিশ, চাদর উদ্ধার করে । পরে পুলিশ মঙ্গলবার সকালে নিজ বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে দিনমজুর মুল্লুক চাঁনের লাশ উদ্ধার করে। কালিহাতী থানার ওসি সওগাতুল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিশ্চিতভাবে বলা না গেলেও প্রাথমিকভাবে আমাদের ধারণা পরকীয়ার কারণে এ হত্যা হয়ে থাকতে পারে। প্রাথমিক তদন্ত শেষে মামলা দায়েরের পর বিস্তারিত জানা যাবে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

Previous articleউল্লাপাড়ায় বন্ধ রয়েছে বিএডিসি’র খাল খনন কাজ
Next articleনিয়োগে অনিয়ম: শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও মহাপরিচালকসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।