বাংলাদেশ প্রতিবেদক: মুলাদীতে এক জীবিত বিধবাকে ভোটার তালিকায় মৃত দেখানো হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার কাজিরচর ইউনিয়নের মৃত মন্নান ফরাজির স্ত্রী শানু বেগমকে ভোটার তালিকায় মৃত দেখানো হয়। ভোটার তালিকায় মৃত থাকায় শানু বেগমের সরকারি বিধবা ভাতার পাশাপাশি সকল প্রকার সুযোগ সুবিধা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ফলে অসহায় এই নারী অনাহারে অর্ধাহারে দিন কাটিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন। নির্বাচন অফিস সূত্র জানায় ২০১৯ সালে ভোটার তালিকা হালনাগাদ করার সময় তথ্য সংগ্রহকারী চরকমিশনার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মোঃ নিজাম উদ্দীন ওই মহিলাকে মৃত উল্লেখ করায় ভোটার তালিকা থেকে নাম কর্তন করা হয়েছে। কয়েকদিন আগে শানু বেগম উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয় গিয়ে জানতে পারেন ভোটার তালিকায় তিনি মৃত রয়েছেন। তাই ১ বছর ধরে তার ভাতা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি শুনে তিনি জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে বিভিন্ন অফিসে ঘুরছেন। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ শওকত আলী জানান ২০১৯ সালে ভোটার তালিকা হালনাগাদের সময় তথ্য সংগ্রহকারী শিক্ষক জীবিত মহিলাকে মৃত দেখিয়েছে তা বুঝতে পারছি না। ক্ষতিগ্রস্থ ব্যক্তির আবেদন পেলে নির্বাচন অফিস দ্রুত ভোটার তালিকা সংশোধনের ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

Previous articleপ্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা তোয়াক্কা না করেই চলছে পুণ্যতীর্থ স্নান ও ওরশ উদযাপন
Next articleরংপুরে ডিলার প্রতি ২শ জনের চাল বা আটা বরাদ্দ, কিন্তু লাইনে দাড়ানো ৫০০
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।