গিয়াস কামাল: নারায়ণগঞ্জ জেলা, সোনারগাঁও পৌরসভা জাতীয় পার্টির দুই নেতা মোঃ রেজাউল করিম ও মোঃ লিয়াকত আলী। গত ১৬/০৫/২০২১ রোববার সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক ও জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আলহাজ্ব মাহফুজুর রহমান কালাম ও পৌরসভা আওয়ামী লীগ, উপজেলা যুবলীগ নেতাদের নিয়ে লিয়াকত হোসেনের গ্রামের বাড়িতে কৃষ্ণপুরা দাওয়াত করে। আয়োজনে পৌরসভা জাতীয় পার্টির সহ সভাপতি লিয়াকত আলী ও জেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য রেজাউল করিম আজ আওয়ামী লীগ ও সামনে জাতীয় পার্টি দল ছাড়ার ঘোষনা দেন। এ সময় রেজাউল করিম ও লিয়াকত আলী বলেন, জীবনে যত দিন বেচে থাকব আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গেই জড়িত থাকব। জাতীয় পার্টির নেতৃবৃন্দ ব্লাকমেইল করে আমাদের দুজনকে জাতীয় পার্টিতে যোগদান করিয়েছিল। পৌরসভা আওয়ামী লীগের সভাপতি তৈয়ব আলী মেম্বার, ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক গাজী আমজাদ হোসেন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম নান্নু, জেলা পরিষদের সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম, সনমান্দী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা শাহাবুদ্দিন শাবু, আওয়ামী লীগ নেতা টগর, মানিক, পিরোজপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সহ সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রাসেল মাহামুদ সহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। যোগদান অনুষ্ঠানে মাহফুজুর রহমান কালাম বলেন, সোনারগাঁয়ে বর্তমানে জাতীয় পার্টির কোনো অস্তিত্ব নেই। বোমা হামলা, অগ্নি সংযোগ, গাড়ী ভাংচুর আওয়ামীলীগের পার্টি ভাংচুর, নেতা কর্মিদের বাড়ি ঘর ভাংচুর সহ বর্তমান সরকারকে উৎখাত করার ষড়যন্ত্রকারী ১৫/২০ টি মামলার আসামি বিএনপির সন্ত্রাসীরা জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়ে হেফাজতে মামলার আসামি হয়ে এখন এলাকা ছাড়া হয়েছে। সোনারগাঁ পৌরসভার এ দুই প্রভাবশালী নেতা আওয়ামী লীগে যোগদান করার কারনে দল আরো শক্তিশালী হবে। আমরা হেফাজত, বিএনপি ও জামায়াতে ইসলামের কাউকে দলে যোগ দিতে দেবনা। এটাই আমাদের দলের নীতিগত সিদ্ধান্ত।

Previous articleমাদারীপুরের শিবচরে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
Next articleঢাকা থেকে রায়পুরে আসলেন, কিন্তু বাড়ী যাওয়া হলো না রফিকের
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।