বাংলাদেশ প্রতিবেদক: মায়ের কোল থেকে বেড়ানোর কথা বলে নিয়ে গিয়ে পাঁচ বছরের একটি শিশুকে ধর্ষণ করেছে কারমাইকেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের শিক্ষার্থী সাগর মহন্ত। এ ঘটনার পর সাঁড়াশী অভিযান চালিয়ে ধর্ষক সাগর মহন্তকে গ্রেফতার করেছে কোতোয়ালী সদর থানা পুলিশ।

আজ শনিবার তাকে মিঠাপুকুর উপজেলার পায়রাবন্দ এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল-হাজতে পাঠানো হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত বুধবার বিকেলে রংপুর সদর উপজেলার হরিদেবপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের বিশ্বনাথপুর গ্রামে। সাগর একই এলাকার নিমাই মহন্তের পুত্র। বর্তমানে শিশুটি রংপুর ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারের চিকিৎসাধীন রয়েছে।

শিশুর পরিবার ও পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মায়ের কোলে ছিল পাঁচ বছরের শিশু কন্যাটি। খেলার কথা বলে মায়ের কোল থেকে শিশুটিকে নিয়ে যায় পার্শ্ববর্তী বাসিন্দা কারমাইকেল বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের বাংলা বিভাগের এমএ ক্লাশে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী সাগর মহন্ত। গরু রাখার ঘরে নিয়ে গিয়ে শিশুটিকে ধর্ষণ করে সে। প্রচণ্ড রক্ত ক্ষরণে শিশুটি অচেতন হয়ে পড়লে পালিয়ে যায় ধর্ষক।

একপর্যায়ে চিৎকার শুনে পরিবারে লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় শিশুটিকে উদ্ধার করে পুলিশের সহায়তায় রংপুর ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় শিশুটির মা বাদী হয়ে ধর্ষক শ্রী সাগর মহন্তের বিরুদ্ধে কোতোয়ালী সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

কোতোয়ালী থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান বলেন, ওই ধর্ষণের ঘটনাটি শোনার খবর পেয়ে সেখানে দ্রুত আমার অফিসার ও ফোর্স পাঠাই। তিনদিন আসামি সাগর মহন্তকে গ্রেফতারে বিভিন্ন স্থানে সাঁড়াশী অভিযান চালানোর পরে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

Previous articleরংপুরের মিঠাপুকুরে ১১শ পরিবারকে খাদ্যসহায়তা প্রদান
Next articleশাহজাদপুরে কোরবানির ৬০ হাজার গবাদি পশু বিক্রি নিয়ে বিপাকে খামারিরা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।