বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালী হাতিয়ায় যৌতুকের জন্য নির্যাতন ও বিয়ের তিন দিনের মাথায় দ্বিতীয় বিয়ের চেষ্টা করার অভিযোগে আব্দুল বাতেন রাজিব (২৭) নামে এক ব্যাংক কর্মকর্তাকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃত আব্দুল বাতেন রাজিব হাতিয়া পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের চর কৈলাস গ্রামের আব্দুল হালিম মিয়ার ছেলে। সে কোম্পানীগঞ্জের বসুরহাট পুবালী ব্যাংকে কর্মরত।

অভিযোগ সূত্রে জানা য়ায়, গত ২২শে জুলাই আব্দুল বাতেন রাজিবের সঙ্গে তমরদ্দি ইউনিয়নের ক্ষিরোদিয়া গ্রামের ডা.আলী আকবর হোসেনের মেয়ে তাছলিমা আকতার শিউলির বিয়ে হয়। এরপর ২৬ জুলাই হাতিয়া পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের শুন্যচর গ্রামের মাষ্টার আব্দুল আলিম রুবেলের মেয়েকে বিয়ে করার জন্য যায় ওই ব্যাংক কর্মকর্তা। খবর পেয়ে শাশুড়ী হোসনে আরা বেগম বাদী হয়ে জামাতা আব্দুল বাতেন রাজিব ও তার বড় ভাই আজিম উদ্দিনকে আসামী করে মঙ্গলবার সকালে হাতিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তাকে আটক করে কোট হাজতে প্রেরণ করেন ।
ভূক্তভোগী তাছলিমা আকতার মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়া উপজেলায় মৎস্য বিভাগে কর্মরত।
এ বিষয়ে দ্বিতীয় কনের বাবা মাষ্টার আব্দুল আলিম রুবেল জানান, আব্দুল বাতেন রাজিব আমার মেয়েকে দেখার জন্য আসলে পুলিশ আমার বাড়ির সামনে থেকে তাকে আটক করে।

হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের জানান, ব্যাংক কর্মকর্তার বিরুদ্ধে যৌতুক আইনে মামলা হয়েছে। ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে তাকে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Previous articleঅনিয়মের অভিযোগে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প এলাকায় করোনা পরীক্ষার ১১টি বুথ বন্ধ
Next articleরমেক থেকে অক্সিজেন সিলিন্ডার পাচার চেষ্টার রহস্য উদঘাটন, গ্রেফতার আরও ২
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।