কামাল সিদ্দিকী: পাবনায় নারীদের দিয়ে অভিনব কায়দায় পথচারীদের অপহরনকারী চক্রের তিন সদস্যকে মুক্তিপনের টাকাসহ আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল।

আটককৃতরা হলো, সুজানগর উপজেলার দুলাই চৌধুরীপাড়ার আনোয়ার হোসেনের ছেলে, রবিন আহম্মেদ রানা (৩৪), বদনপুর উত্তরপাড়ার মাহাতাব মোল্লা ছেলে ফারুক হোসেন (৩৪) ও একই এলাকার আজমত আলীর ছেলে নজরুল ইসলাম (৩৫)। মঙ্গলবার দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান (বিপিএম) জানান, গত ৮ আগষ্ট সুজানগরের বদনপুরে নির্জন রাস্তাদিয়ে মোটরসাইকেল চালিয়ে যাচ্ছিলেন আলাউদ্দিন নামের এক ব্যাক্তি। এ সময় এক নারী আলাউদ্দিনের কাছে গন্তব্যে পৌছানোর জন্য সাহায্য চাই। আলাউদ্দিন সরল বিশ^াসে ওই নারীকে মোটর সাইকেলে তুলে কিছ দূরু যাবার পরে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা অপহরনকারী চক্রের অপর সদস্যরা মোটর সাইকেলের পখ রোধ করে। অপহরনকারীরা ওই নারীকে উত্ত্যাক্ত ও তার সাথে অবৈধ সর্ম্পক আছে বলে আলাউদ্দিনকে মারধর করে অপহরন করে নিয়ে যায়। পরে ৯৩ হাজার টাকা মুক্তিপন আদাপয়ের করে আলাউদ্দিকে ছেড়ে দেয়। এ ঘটনায় আলাউদ্দিন জেলা গোয়েন্দা পুলিশের কাছে অভিযোগ করলে গোয়েন্দা পুলিশ তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় আপহরনকারীদের চিহ্নিত করে। সোমবার রাতভর সুজানগর উপজেলার ভিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৭০ হাজার টাকাসহ অপহরনকারী চক্রের তিন সদস্যকে আটক করে। সংবাদ সন্মেলনে পুলিশ সুপার আরো জানান, এই চক্রের নারী সদস্যসহ অপর সহযোগীদের আটকের চেষ্ঠা চলছে। আটককৃতদের মধ্যে রবিন আহম্মেদ রানার বিরুদ্ধে মাদক,দ্রুতবিচারসহ চারটি মামলা আদালতে বিচারাধীন আছে। সংবাদ সন্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার স্নিগ্ধ আক্তার, গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল হান্নানসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

Previous articleনলছিটিতে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের উদ্বোধন
Next articleপরীমনিকাণ্ডে চাঁদাবাজি এড়াতে সিটি ব্যাংকের জিডি
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।