ওসমান গনি: সিএনজি অটোরিক্সা স্ট্যান্ডে চাঁদা আদায় বন্ধের দাবীতে কুমিল্লার দেবীদ্বার ও চান্দিনা সড়কে মানববন্ধন করেছে চালক ও শ্রমিকরা।

শুক্রবার (২০ আগস্ট) দুপুরে পৌঁনে ৩টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চান্দিনা-বাগুর বাস স্টেশন সংলগ্ন চান্দিনা ও দেবীদ্বার উপজেলার সংযোগ সড়কের সিএনজি অটোরিক্সা স্ট্যান্ডে ওই মানববন্ধন করে তারা।

চালকরা জানান- চান্দিনা ও দেবীদ্বার উপজেলার প্রধান সংযোগ সড়কটির এক প্রান্ত দেবীদ্বার উপজেলা সদর অপর প্রান্ত চান্দিনা-বাগুর বাস স্টেশন। চান্দিনা-বাগুর বাস স্টেশন সংলগ্ন সিএনজি স্ট্যান্ডে প্রতিদিন ৩০ টাকা জিপি নেয় কিন্তু দেবীদ্বার উপজেলা সদরের স্ট্যান্ডে প্রতিদিন ৮০ টাকা জিপি নেয়।

ওই স্ট্যান্ডের দুই চাঁদাবাজ কাজী তছলিম ও কাজী সুমন নতুন কোন সিএনজি অটোরিক্সা ওই সড়কে আসলে প্রথমে ৫ হাজার টাকা নিয়ে লাইনে যুক্ত করে। তারপর থানার নামে প্রতিমাসে ৬শ টাকা এবং জিপি’র (গেইট পাস) নামে প্রতিদিন ৮০ টাকা করে চাঁদা নেয়। এতে সিএনজি অটোরিক্সার চালকরা মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। মানববন্ধনে চালকরা চাঁদা আদায় বন্ধে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

সিএনজি চালক সালাউদ্দিন জানান- ওই সড়কে প্রতিদিন ৩শ সিএনজি অটোরিক্সা চলাচল করে। সেই হিসাব মতে শুধুমাত্র দেবীদ্বার স্ট্যান্ডে প্রতিদিন জিপি আদায় ২৪ হাজার টাকা, ৬শ টাকা মাসিক চাঁদায় ১ লাখ ৮০ হাজার টাকা, বহিরাগত সিএনজি থেকে আদায় অন্তত ২০ হাজার টাকা, সর্ব মোট প্রতিমাসে ৯-১০ লাখ টাকা চাঁদা আদায় করা হচ্ছে।

ওই হিসাব শুধুমাত্র চান্দিনা-বাগুর সড়কে। একই রকম হিসাব রয়েছে দেবীদ্বার-জাফরগঞ্জ সড়ক, দেবীদ্বার-ফতেহাবাদ সড়ক, দেবীদ্বার-বড়শালঘর সড়ক, দেবীদ্বার-গুনাইঘর সড়কে। দেবীদ্বার পৌর এলাকার ৬টি স্ট্যান্ড থেকে অন্তত ১ হাজার সিএনজি অটোরিক্সার একই হিসাবে প্রতিমাসে অর্ধকোটি টাকা চাঁদা হাতিয়ে নিচ্ছে চাঁদাবাজরা।

এ ব্যাপারে সিএনজি স্ট্যান্ডের ইজারাদার কাজী সুমন জানান- আমাদের স্ট্যান্ডে সিএনজি চালানোর জন্য প্রতি বছর আড়াই হাজার টাকা নেই, আর প্রতিদিন ৮০ টাকা জিপি নেই। তার বাহিরে কোন টাকা নেই না।

দেবীদ্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আরিফুর রহমান জানান- থানার নামে যদি কেউ গরীব ওই চালকদের কাছ থেকে চাঁদা আদায় করে থাকে তাহলে তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।
দেবীদ্বার উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মো. রাকিব হাসান জানান- মূলত পৌর এলাকার ৬টি সিএনজি স্ট্যান্ড ব্যতিত উপজেলার কোন স্ট্যান্ড ইজারা দেওয়া হয়নি। কাজী সুমন পৌর এলাকার সিএনজি স্ট্যান্ডের ইজারাদার। চান্দিনা-দেবীদ্বার সড়কের শুধুমাত্র দেবীদ্বার উপজেলা সদরের স্ট্যান্ড থেকে সিএনজি অটোরিক্সার ট্রিপ প্রতি ৫ টাকা সরকারি ভাবে নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। তারপরও যদি কেউ অতিরিক্ত টাকা নেয়, আমরা লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।
এ ব্যাপারে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আবুল কালাম আজাদ জানান, সিএনজি অটোরিক্সার স্ট্যান্ড সরকারি ভাবে ইজারা দেওয়ার কোন বিধি না থাকায় ইজারা দেওয়া হয়নি। চাঁদা আদায়কারীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানা অফিসার ইন-চার্জকে বলা হয়েছে।

Previous article২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে রাজাপুরে আ’লীগের মানববন্ধন
Next article২১আগস্ট গ্রেনেড হামলা দিবস উপলক্ষে কালিহাতী পৌর আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।