শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪
Homeসারাবাংলাচাঁপাইনবাবগঞ্জে ৪৫মাস যাবৎ ইউপি সদস্যদের সম্মানিভাতা বন্ধ! চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অভিযোগ

চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৪৫মাস যাবৎ ইউপি সদস্যদের সম্মানিভাতা বন্ধ! চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অভিযোগ

ফেরদৌস সিহানুক শান্ত: চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল উপজেলার নেজাপুর ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্যদের ৪৫ মাস যাবৎ সম্মানিভাতা বন্ধ। প্রতিকার পাবার আশায় ভূক্তোভোগী সদস্যরা গত ১৮ আগস্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবেদন করেছেন।

অভিযোগ দেয়ার পরও অভিযুক্ত চেয়ারম্যান এ নিয়ে কোন ব্যবস্থা না নেয়ায় হতাশ ইউ’ পি সদস্যরা।অভিযুক্ত চেয়ারম্যান হলেন আমিনুল হক।
ইউ’ পি সদস্যদের অভিযোগ থেকে জানাগেছে, নাচোল উপজেলার নেজামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইউপি সদস্যদের ৪৫মাসের ভাতা বন্ধ রেখেছেন। এর আগেও এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন ইউ’ পি সদস্যরা করেছিলেন। পরে নাচোল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কাদের দায়িত্ব নিয়েও তিনি এর সমাধান আনতে পারেননি।
অভিযোগ অাছে ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল হক ক্ষমতার অপব্যবহার করে ইউপি সদস্যদের ভাতা বন্ধ রেখেছেন। পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন প্রকল্প স্বেচ্ছাচারিতা ও ক্ষমতার অপব্যবহার করে নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে নিজেই বাস্তবায়ন করে থাকেন।
ভূক্তোভোগী ইউপি সদস্য আবু বাক্কার জানান, তিনি নিষিদ্ধ সংগঠন জামায়াতের সক্রিয় সদস্য। আমরা অন্যায়ের প্রতিবাদ করলে তিনি জামায়াত শিবির দিয়ে আমাদের নির্যাতন করবে বলে হুমকি প্রদর্শন করেন। তিনি আরো জানান, ইউনিয়ন পরিষদের গত ৫বছরের ৬৩টি দোকান ঘরের ভাড়া বাবদ ১২লক্ষ টাকা, হোল্ডিং ট্যাক্স ২০লক্ষ টাকা, ট্রেড লাইসেন্স বাবদ ৫লক্ষ টাকা,খোয়ার থেকে ১লক্ষ ৫০হাজার টাকা, ওয়ারেশন সার্টিফিকেট বাবদ ১লক্ষ ৫০ হাজার রাজস্ত আয় হয়। কিন্তু উক্ত রাজস্বের টাকা চেয়ারম্যান আমিনুল হক আত্মসাৎ করেছেন বলে অভিযোগ উল্লেখ করেন।
তিনি অভিযোগ পত্রের উদৃতি দিয়ে আরো জানান, আমারা ভাতার সরকারী অংশটুকু প্রতিমাসে নিয়মিত পেলেও পরিষদ থেকে প্রাপ্ত সম্মানি ভাতা চেয়ারম্যান আমিনুল হক আমাদের পরিশোধ করছেননা। তাই বাধ্য হয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর আবেদন দিয়েছি।
এদিকে নাচোল উপজেলা নিবাহী অফিসার ৭কর্মদিবসের মধ্যে বকেয়া সম্মানি ভাতা পরিশোধের জন্য চেয়ারম্যান আমিনুল হককে নির্দেশ দিলেও রবিবার পযন্ত তিনি বেতন ভাতা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যদের প্রদান করেন নি।
এ ব্যাপারে নেজামপুর ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুল হকের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমার বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ এর অভিযোগ মিথ্যা। ট্যাক্স ঠিকমত কালেকশন না হওয়ায় ইউপি সদস্যদের সম্মানিভাতা ঠিকমত দিতে পারেনি। ট্যাক্স আদায়ের ক্ষেত্রে ইউপি সদস্যরা কোন ধরনের সহযোগীতা বা দায়িত্ব পালন করেননা।
এ বিষয়ে নাচোল উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবিহা সুলতানার সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, নেজামপুর ইউপি সচীবকে আয়-ব্যয়ের হিসাব দাখিল করতে বলেছিলাম তিনি তা করেননি। চেয়ারম্যান সাহেব বলেছিলাম তিনি কোন সদুত্তর না দেওয়ায় উভয়কে শোকজ করা হয়েছে। সেই সাথে ইউপি সদস্যদের বকেয়া সম্মানিভাতা পরিশোধের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনপূর্বক নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়কে অবহিত করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments