এস কে রঞ্জন: পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় খাদ্য অধিদপ্তরের নারী খাদ্য পরিদর্শক আরিফা সুলতানা’র সাথে একজন ওএমএস ডিলারের দীর্ঘ দিন ধরে অনৈতিক কর্মকান্ডের অভিযোগের তদন্ত শুরু করেছে খাদ্য অধিদপ্তরের গঠিত তদন্ত কমিটি।

১৩ সেপ্টেম্বর সোমবার ঝালকাঠি জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো: তানভির হোসেন’র নেতৃত্বে এক সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি তদন্ত শুরু করবেন বলে জানিয়েছেন পটুয়াখালী জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো: লিয়াকত আলী। এর আগে উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অফিসের নারী খাদ্য পরিদর্শক আরিফা সুলতানা’র সাথে ওএমএস ডিলারের অনৈতিক কর্মকান্ডের অভিযোগে কলাপাড়া থানায় সাধারন ডায়েরী দায়ের করেন পৌরশহরের ইসলামপুর এলাকার মোসা: মাসুমা আক্তার কলি। তিনি প্রতিকার পেতে কলাপাড়া ইউএনও বরাবর একটি লিখিত অভিযোগও দায়ের করেন। মাসুমা আক্তার সাধারন ডায়েরীতে উল্লেখ করেন,খাদ্য পরিদর্শক আরিফা সুলতানা তার স্বামী ওএমএস ডিলার মামুন হাওলাদার’র সাথে দীর্ঘ দিন ধরে পরকীয়ায় লিপ্ত হয়ে অনৈতিক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন। বিষয়টি অফিস পাড়ায় মুখরোচক আলোচনায় পরিনত হয় বেশ ক’দিন। গনমাধ্যমে উঠে আসে নারী খাদ্য পরিদর্শক’র এ কীর্তি। এরপর বরিশাল আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো: জাহাঙ্গীর হোসেন এ ঘটনার তদন্তে ঝালকাঠি জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো: তানভির হোসেন’র নেতৃত্বে এক সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করে তদন্তের নির্দেশ দেন। এ বিষয়ে তদন্ত কমিটির প্রধান ঝালকাঠি জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মো: তানভির হোসেন’র সাথে যোগাযোগের জন্য তার মুঠো ফোনে একাধিকবার সংযোগ স্থাপনের চেষ্টা করেও সংযোগ পাওয়া যায়নি।

Previous articleদীর্ঘদিন পর বিদ্যালয় খোলার ঘোষণা থাকলেও, চাপাইতি প্রাঃ বিদ্যালয়ের দরজায় রয়েছে তালা !
Next articleতালেবানকে ঠেকাতে ভারতীয় সেনার উচ্চ প্রশিক্ষণ শুরু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।