এস এম শফিকুল ইসলাম: জয়পুরহাট সদর উপজেলার নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষণের মামলায় মোমিন আকন্দ নামের এক আসামীর দুটি ধারায় ৬০ বছরের কারাদন্ড ও ১২ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ১২ বছরের সশ্রম কারাদন্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার দুপুরে জয়পুরহাট জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক মো. রুস্তম আলী জনাকীর্ণ আদালতে এ রায় প্রদান করেন। দন্ডাদেশ প্রাপ্ত আসামী হলেন-জয়পুরহাট সদর উপজেলার বম্বু ইউনিয়নের ধারকি বড়াইল পাড়ার মামুন আকন্দের ছেলে। মামলার বিবরণীতে জানা যায়,মোমিন আকন্দ ওই ছাত্রীকে প্রায় সময় প্রেম নিবেদন করে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিল। পরবর্তীতে ২০১৮ সালের ৩ সেপ্টেম্বর স্থানীয় স্কুল গেটের সামনে থেকে আসামী মোমিন ও তার ৬ সহযোগী অপহরণ করে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে যায়। পরে তাকে ধর্ষণ করা হয়। এ ঘটনায় স্কুল ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে ৫ সেপ্টেম্বর জয়পুরহাট থানায় ৬ জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করলে ৩ মাস পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে মেয়েটিকে উদ্ধার করে। পরে পুলিশ দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১৮ সালের ৩১ ডিসেম্বর শুধুমাত্র মোমিনকে আসামী দেখিয়ে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন এবং অপর অভিযুক্তদের মামলা থেকে অব্যাহতি প্রদান করেন। পরে দীর্ঘ শুনানী ও সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে আজ মঙ্গলবার দুপুরে আদালতের বিচারক আসামী মোমিন আকন্দকে ওই মামলায় পৃথক দুটি ধারায় ৬০ বছর জেল এবং ১২ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ১২ বছরের জেল প্রদান করেন। সরকার পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট ফিরোজা চৌধুরী। আর আসামী পক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট হেনা কবির।

Previous articleসোনাইমুড়ীতে বিএনপি নেতার বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ
Next articleপাঁচবিবিতে মুরাদুল মোস্তাকিমের ড্রাগন ফল চাষে সাফল্য
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।