বাংলাদেশ প্রতিবেদক: মুলাদীতে ঘরের উপর ঝুঁকিপূর্ণ বিদ্যুতের তার স্পর্শে শিশু জুবায়েরের দুই হাত হারানোর শঙ্কা দেখা দিয়েছে। ভবনের ছাদ থেকে পড়ার ভয়ে বিদ্যুতের তার ধরেছিলো জুবায়ের। পড়ে যাওয়া থেকে রক্ষা পেলেও দুই হাত হারাতে যাচ্ছে সে।

গত শুক্রবার উপজেলার বাটামারা ইউনিয়নের আলীমাবাদ গ্রামের সরদারের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। জুবায়ের ওই গ্রামের তোফাজ্জেল সরদারের ছেলে। সে আলীমাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র। বর্তমানে সে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তোফাজ্জেল সরদার জানান, শুক্রবার তার ছেলে জুবায়ের বাড়ির ছাদে খেলতে যায়। হঠাৎ পা পিছলে পড়ে যাওয়ার উপক্রম হলে ঘরে উপরে থাকা বিদ্যুতের তার ধরে ফেলে। এতে সে বিদ্যুতায়িত হলে দুই হাত পুড়ে যায় এবং সে ছাদের ওপর ছিটকে পরে। বাড়ির লোকজন তাকে উদ্ধার করে গৌরনদী আশুকাঠি হাসপাতালে নিয়ে যায়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চিকিৎসক তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ণ ইউনিটি প্রেরণ করেন। জুবায়েরের দুই হাত কেটে ফেলতে হবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। তোফাজ্জেল সরদার আরও বলেন, ২০১১ সালে তিনি বাড়িতে পাকা ভবন নির্মাণ করেছি। ২০১৭ সালে বিদ্যুতের ৩৩ কেভি ভোল্টের লাইন নির্মানের সময় তৎকালীন ঠিকাদার ঘরের ওপর দিয়ে তার নেয়। আমি বাঁধা দেই। কিন্তু ঠিকাদার কোনো কিছু শোনে নি। তার ও খুটি সরানোর জন্য ২৫ হাজার টাকা দিয়েছিলাম। টাকা নিয়ে ঠিকাদার বিদ্যুতের তার না সড়িয়ে উল্টো মামলার ভয় দেখিয়েছে। এখনও বাড়ির ওপর বিদ্যুতের তার ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছে। ছেলে দুর্ঘটনার শিকার হয়ে হাত হারাতে বসেছে। বাড়ির অন্যান্যরাও দুর্ঘটনার শিকার হতে পারে। তাই বিদ্যুতের তার সরানো প্রয়োজন। এ ব্যাপারে মুলাদী পল্লী বিদ্যুতের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) আনন্দ কুমার কুন্ডু জানান, ঘরের উপরে বিদ্যুতের লাইনের বিষয়টি জানা ছিলো। জানার পর পরই শনিবার সকালে লোক পাঠানো হয়েছে। বিদ্যুতের খুটি ও তার সরানোর জন্য দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Previous articleওয়েবসাইট বন্ধ করে দিয়েছে ইভ্যালি
Next articleমুলাদীতে পঁচিশ হাজার মানুষ চিকিৎসা সেবা বঞ্চিত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।