বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ঈশ্বরদীস্থ সুগারক্রপ গবেষণা ইনস্টিউটে পাবনা জেলা কোটার দাবিতে মানববন্ধন ও পথসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) সকালে ইনস্টিউটের প্রধান ফটকের সামনে এই মানবন্ধন ও পথসভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বক্তরা সুগারক্রপের চাকুরিতে পাবনা জেলার মানুষের জন্য কোটা প্রবর্তনের দাবীর পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানের কাজ ছোট ছোট কোটেশনে বিভক্ত না করে উন্মুক্ত টেন্ডারের মাধ্যমে সম্পাদনের আহব্বান জানান। এসময় ইনস্টিউটের মহাপরিচালকের অপসারণের দাবী জানানো হয়।

সভায় বক্তরা বলেন, পাবনা জেলার ঈশ্বরদীতে সুগারক্রপ গবেষণা ইনস্টিউটের অবস্থান। এই প্রতিষ্ঠানে চাকুরি ক্ষেত্রে সর্বাগ্রে এই জেলার মানুষের অধিকার রয়েছে। অথচ দীর্ঘদিন যাবত এখানে পাবনা জেলার মানুষকে নিয়োগ দেয়া হচ্ছে না। পাবনা জেলার মানুষের জন্য কোটা প্রবর্তনের দাবী জানিয়ে বক্তারা প্রতিষ্ঠানের কাজ ছোট ছোট কোটেশনে বিভক্ত না করে উন্মুক্ত টেন্ডারের মাধ্যমে সম্পাদনের আহব্বান জানান। এসময় ইনস্টিউটের মহাপরিচালকের অপসারণের দাবী জানানো হয়।

পথসভায় বক্তব্য রাখেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহব্বায়ক মাসুদ রানা, পৌরসভার কাউন্সিলর ইউসুফ প্রধান, কাউন্সিলর ফিরোজা বেগম, কাউন্সিলর জাহাঙ্গির হোসেন, কাউন্সিলর কামাল হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রুয়েন, ছাত্রলীগ নেতা আমজাদ হোসেন অবুঝ, কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাব্বির হোসেন প্রমূখ। সঞ্চালনা করেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহব্বায়ক সজিব মালিথা।সঞ্চালনা করেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহব্বায়ক সজিব মালিথা।

এবিষয়ে ইনিস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. আমজাদ হোসেন বলেন, সুগারক্রপ গবেষণা ইনিস্টিটিউট দেশের একটি সুনামধন্য প্রতিষ্ঠান। সরকারি বিধিবিধান মেনে নিয়োগ কার্যক্রম চলমান আছে। দেশের সকল জেলার কোটা ফলো করে নিয়োগ কমিটি মন্ত্রণালয়ের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে গঠিত বোর্ড নিয়োগ কার্যক্রম পরিচালনা করেন। তিনি বলেন, আমিও পাবনা জেলার মানুষ, আমার জেলার জন্য বিশেষ কোটা থাকলে আমিও খুশি হতাম।

Previous articleহাসপাতালের সামনে থেকে সিএনজি-রিকশা স্ট্যান্ড উচ্ছেদ করায় ২ আনসার সদস্যকে ছুরিকাঘাত
Next articleরেজা কিবরিয়া ও নুরের নেতৃত্বে নতুন রাজনৈতিক দলের আত্মপ্রকাশ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।