জয়নাল আবেদীন: রংপুরের পীরগঞ্জে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনায় জড়িত অভিযোগে আরও তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের একজনের কাছ থেকে হিন্দুদের বাড়ি থেকে লুট হওয়া মাছ ধরার একটি জাল উদ্ধার করা হয়েছে।

পীরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সরেস চন্দ্র মঙ্গলবার দুপুরে গ্রেফতারের বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন ।গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন পলাশ হোসেন ,শাফিকুর রহমান ও আশিকুর রহমান । পুলিশ জানায় সোমবার রাতে পীরগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তাদের একজনের কাছে মাছ শিকারের একটি জাল পাওয়া যায়। গ্রেফতার সবাই হিন্দুপল্লিদের বাড়িঘরে হামলা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটের মামলার আসামি। এদিকে রংপুর জেলার সহকারী পুলিশ সুপার (পীরগঞ্জ সার্কেল) মো. কামরুজ্জামান জানান, বড় করিমপুর মাঝিপাড়া গ্রামে সহিংসতার ঘটনায় চারটি মামলা হয়েছে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তিনটি এবং হামলা, ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও লুটের ঘটনায় একটি মামলা রয়েছে। এখন পর্যন্ত দুই দফায় ৫০ জন আসামি রিমান্ডের আওতায় এসেছে। নতুন তিনজনসহ এখন পর্যন্ত ৬৯ জন গ্রেফতার হয়েছেন। প্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রকৃত অপরাধীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। গ্রেফতার ব্যক্তিদের মধ্যে ফেসবুকে আপত্তিকর পোস্ট দেওয়া ও সহিংসতার ঘটনা উসকে দেওয়ার অন্যতম হোতা পরিতোষ সরকার, উজ্জ্বল হোসেন, বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেতা সৈকত মণ্ডল ও মসজিদের ইমাম রবিউল ইসলামসহ অনেকেই রয়েছেন। তারা আদালতে দেওয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে নিজেদের জড়িত থাকার দায় স্বীকার করেছেন। এদিকে রংপুর মেট্রোপলিটন উপ-পুলিশ কমিশনার মোঃ আবু মারুফ হোসেন এর তত্তাবধানে, সহকারী পুলিশ কমিশনারবৃন্দ, অফিসার ইনচার্জ ও বিট অফিসারদের উপস্থিতিতে রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের অধিনস্থ থানা সমূহের বিটগুলোতে বিভিন্ন ধর্ম ও শ্রেণী পেশার মানুষের প্রতিনিধি ও কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সদস্যদের সমন্বয়ে শান্তি ও সম্প্রীতি সমাবেশ অব্যাহত রয়েছে।

Previous articleগ্রাহকের শতকোটি টাকা নিয়ে উধাও কর্ণফুলী মাল্টিপারপাসের মালিকপক্ষ
Next articleমুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ইসমাইল হোসেনের নাম নেই জামুকার তালিকায়
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।