গিয়াস কামাল: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার কাচঁপুর সেনপাড়া এলাকার একটি ফ্ল্যাট বাসা থেকে শাকিল গাজী (২৮) নামে এক যুবকের গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার বিকেলে মরদেহটি উদ্ধার পূর্বক ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিহত শাকিল গাজী মুন্সিগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলার মিতারা গ্রামের কামাল গাজীর ছেলে। তিনি কাচঁপুর সেনপাড়া এলাকার আব্দুর রহমান মুন্সির বাসার ভাড়াটিয়া। নিহত শাকিল গাজীর স্ত্রী রাত্রী আক্তার জানান, তার স্বামী শাকিল গাজী ১৫ দিন আগে ঢাকার জুরাইন এলাকার সিফাত মিয়া ও সাব্বির আহামেদ নামে দুজন বন্ধুকে নিয়ে কাচঁপুর সেনপাড়ার একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নেন এবং তারা সেখানে বসবাস করতেন। নিহতের স্ত্রী আরো জানান, আমি আমার বাবার বাড়ি কুমিল্লায় থাকতাম। গত দুদিন ধরে তার সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করতে না পেরে সকালে বাসায় এসে দেখি রুমে তালা। তালাবদ্ধ রুম থেকে দুর্গন্ধ বের হওয়ায় প্রতিবেশীদের সহযোগিতায় তালা খুলে ভেতরে তার গলাকাটা মরদেহ দেখতে পাই এবং পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। আমি আমার স্বামী হত্যার বিচার চাই। এদিকে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ বিল্লাল হোসেন ও সোনারগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ওসি মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে নিহতের সঙ্গীয় সিফাত মিয়া ও সাব্বির আহামেদ এ কাজটি ঘটিয়েছে। সিফাত মিয়া ও সাব্বির আহামেকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। তাদের গ্রেফতার করা গেলেই পুরো ঘটনার জট খুলবে।

Previous articleরাজাপুর হানাদার মুক্ত দিবস আজ
Next articleরংপুরে ঘাঘট নদীতে বালুদস্যুদের তান্ডব রুখতে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।