কামাল সিদ্দিকী: পাবনা সদর উপজেলার হেমায়েতপুর ইউনিয়নে নির্বাচন পরবর্তী হামলায় আওয়ামী লীগ নেতা হত্যার ঘটনায় আওয়ামীলীগের সতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী তারিকুল ইসলাম নিলুর স্ত্রী মালেকা বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোররাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘নিহত শামীম হোসেনের বাবা নুর আলী বাদী হয়ে বুধবার রাতে তারিকুল ইসলাম নিলুসহ তার পরিবারের ১৬ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাত ৮/১০ জনকে আসামি করে মামলা করেন। এরপর নিলুর স্ত্রী মালেকা বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তার ও অস্ত্র উদ্ধারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মঞ্জুরুল ইসলাম মধু পরাজয়ের পর কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে নাজিরপুর হাটের উপর চায়ের দোকানে বসে চা খাচ্ছিলো। এ সময় নিজ দলের সতন্ত্র প্রার্থী তারিকুল ইসলাম নিলু, তার ছেলে ইমরান হোসেনসহ কতিপয় লোকজন অতর্কিত তাদের ওপর হামলা চালায়। সে সময় মধুর নির্বাচনী এজেন্ট শামীম হোসেন গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন। নিহত শামীম স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ছিলেন। তিনিও মেম্বার প্রার্থী ছিলেন।

এ ঘটনার পর থেকে ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। বুধবার আইনী প্রক্রিয়া শেষে পুলিশের উপস্থিতিতে শামীমের জানাযা ও দাফন সম্পন্ন হয়।

Previous articleজয়পুরহাটে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাক দোকানে, নিহত ১
Next articleজিপিএ-৫ ও পাসের হারে এগিয়ে মেয়েরা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।