বাংলাদেশ প্রতিবেদক: সুনামগঞ্জে পরকিয়া ও পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীর হাতে খুন হয়েছেন রিপা বেগম (৩০) নামে এক নারী। রোববার দুপুরে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের পশ্চিম তেঘরিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত স্বামী আব্দুল হামিদ মিল্টনকে (৪২) আটক করেছে সুনামগঞ্জ র‍্যাব।

আব্দুল হামিদ মিল্টন জেলার সদর উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের মঈনপুর গ্রামের লেম্বু মিয়ার ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ১৫ দিন আগে স্বামী আব্দুল হামিদের সাথে ঝগড়া করে বাড়ি থেকে বের হয়ে যান স্ত্রী রিপা বেগম। পরে পৌর শহরের পশ্চিম তেঘরিয়া এলাকার একটি ভাড়া বাসায় উঠেন তিনি। সেখানে মঙ্গলকাটা গ্রামের গুলজার আহমদ নামের এক যুবককে স্বামী পরিচয় দিয়ে বসবাস করতে থাকেন তারা।

স্বামী মিল্টন এ খবর জানতে পেরে রোববার দুপুরে পশ্চিম তেঘরিয়ার বাসায় এসে তার স্ত্রীর সাথে দরজা লাগিয়ে কথা বলেন। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে ঘরে থাকা তরকারি কাটার দা দিয়ে স্ত্রীর মাথায়
আঘাত করেন মিল্টন। এতে চিৎকার দিয়ে মাটিতে পড়ে যান স্ত্রী।

স্থানীয়রা এসে দরজা খুলতে বললে মিল্টন দরজা খুলে দৌড়ে পালিয়ে যান। পরে বাসার মালিক ৯৯৯-এ ফোন দিয়ে ঘটনাটি বললে পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার করেন। এ অবস্থায় ওই নারীকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খুন হওয়া রিপা বেগমের বড় মেয়ে ফাহমিদা জাহান বলেন, আমি পাশের ঘরে এসে টিভি দেখছিলাম। হঠাৎ আমার বাবা এসে ঘরের দরজা লাগিয়ে মায়ের সাথে কথা বলতে থাকেন। পরে মায়ের চিৎকার শুনে পাশের ঘরের খালাসহ আমরা সবাই দৌড়ে যাই। এ সময় বাবাকে দরজা খোলার জন্য অনুরোধ করলে তিনি দরজা খুলে দৌড়ে পালিয়ে যান এবং মা মাটিতে পড়ে থাকেন।

সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) জয়নাল আবেদীন বলেন, পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন হয়েছেন। ঘাতক স্বামীকে আটক করেছে সুনামগঞ্জ র‍্যাব।

Previous article‘অস্ট্রেলিয়া ছাড়ার আগেই বুকে ব্যথা ছিল ওয়ার্নের’
Next articleদ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকার সজাগ রয়েছে: হানিফ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।