বাংলাদেশ ডেস্ক: ছুটি কাটাতে নিজ দেশ অস্ট্রেলিয়া থেকে থাইল্যান্ড গিয়েছিলেন কিংবদন্তি স্পিনার শেন ওয়ার্ন।

গত শুক্রবার থাইল্যান্ডের কোহ সামুই দ্বীপে আকস্মিক মৃত্যু হয় ওয়ার্নের। মাত্র ৫২ বছর বয়সে হার্ট অ্যাটাকে মারা যান তিনি। তবে তার এই আকস্মিক মৃত্যুকে অনেকেই রহস্যের চোখে দেখছেন। যে কারণে তদন্তে নেমেছে থাইল্যান্ড পুলিশ।

তবে ওয়ার্নের মৃত্যুকে সন্দেহজনক হিসেবে বিবেচনা করছে না থাই পুলিশ।

তারা জানায়, অস্ট্রেলিয়া ছাড়ার আগেই বুকে ব্যথা ছিল ওয়ার্নের। ধারনা করা হচ্ছে, হার্টের অসুস্থতা থেকেই হৃৎযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা গেছেন ওয়ার্ন।

সংবাদমাধ্যমকে থাই পুলিশের সুপেরিটেন্ডেন্ট ইউটানা সিরিসোম্বাত বলেন, ‘তার (ওয়ার্ন) হাঁপানি রোগ ছিল এবং হৃদযন্ত্রের সমস্যার জন্য একজন চিকিৎসক দেখিয়েছিলেন তিনি।’

পূর্বের কোনো অসুস্থতা সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে, ওয়ার্নের পরিবার জানিয়েছে, আগের থেকে বুকে ব্যথা ছিল তার।

ইউটানা বলেন, ‘আমরা তার পরিবারের কাছ থেকে জানতে পেরেছি, যখন দেশে ছিলেন তখনই বুকে ব্যথা অনুভব করেছিলেন ওয়ার্ন।’

থাইল্যান্ডের কো সামুই দ্বীপের একটি প্রাইভেট ভিলায় তিন বন্ধুকে নিয়ে সময় পার করছিলেন ওয়ার্ন। ডিনারের সময় টেবিলে উপস্থিত না হওয়ায় তার রুমে গিয়ে ওয়ার্নকে অচেতন অবস্থায় পান একজন। পরে তাকে সিপিআর করেছিলেন ওই ব্যক্তি।

ভিলা থেকে ওয়ার্নকে অ্যাম্বুলেন্সে করে থাই ইন্টারন্যাশনাল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় এবং পরে তার দেহ কো সামুই হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

ওয়ার্নের ম্যানেজার জেমস এরস্কাইন ফক্স ক্রিকেটকে বলেছিলেন, পরিকল্পিত তিন মাসের ছুটিতে মাত্র তিন দিন ছিলেন ওয়ার্ন এবং অসুস্থ হয়ে পড়লে একাই ক্রিকেট দেখছিলেন তিনি। তার বন্ধু এন্ড্রু নিওফিতু, একই ভিলায় ছিলেন। তিনিই ওয়ার্নের রুমে গিয়েছিলেন।

থাইল্যান্ডে অস্ট্রেলিয়ার রাষ্ট্রদূত অ্যালান ম্যাকিনন জানিয়েছেন, ‘থাই পুলিশ এবং হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ যত দ্রুত সম্ভব ওয়ার্নের লাশ অস্ট্রেলিয়ায় পাঠানোর ব্যবস্থা করছে। তারা এ বিষয়ে বড় ভূমিকা পালন করছে।’

Previous articleফুটপাত অবৈধ দখলমুক্ত ও আধুনিক ঢাকা গড়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
Next articleসুনামগঞ্জে পরকিয়ার জেরে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।