এস কে রঞ্জন: পটুয়াখালীর কলাপাড়ার সরকারি মোজাহারউদ্দিন বিশ্বাস ডিগ্রি কলেজ ক্যাম্পাসে দুই শিক্ষার্থীকে নির্যাতনের ঘটনায় কলেজ ছাত্রলীগের দুই গ্রুপ প্রকাশ্যে পাল্টাপাল্টি অবস্থান নিয়েছে। এ ঘটনায় ক্যাম্পাসে কিছুটা উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে কলাপাড়া থানা পুলিশ ক্যাম্পাসে অবস্থান নিয়ে পরিবেশ শান্ত করেন। ৩ এপ্রিল রোববার সকাল ১০টায় কলেজ ছাত্র মিলনায়তনের সামনে সংবাদ সম্মেলন করে কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান অমি গাজী।

সংবাদ সম্মলনে তিনি দাবি করেন,কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি বহিরাগতদের নিয়ে ক্যাম্পাস অস্থিতিশীল করছে। শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট করছে। শনিবার দুই ছাত্রের উপর হামলার ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনা অনুযায়ী সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। একই সাথে কলেজে শিক্ষার পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে কলেজ প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ করেন। একই সাথে ছাত্র নির্যাতনের ঘটনায় কোন নিরীহ ছাত্রকে হয়রানী না করতে প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ করেন। অপরদিকে কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি গ্রুপ নিরীহ ছাত্রদের উপর হামলার ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি দাবি করে কলেজের প্রশাসনিক ভবনের সামনে মানববন্ধন করেছে। মানববন্ধনে কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি আসাদুজ্জামান হিরন বলেন,ক্যাম্পাসে ছাত্ররা আজ অনিরাপদ। তারা হামলায় জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানান। একই সাথে কলেজ প্রশাসনের কাছে দাবি করেন জরুরী ভিত্তিতে তদন্ত করে হামলায় জড়িতদের কলেজ থেকে বহিস্কার করা হোক।

এদিকে সাধারণ শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন, কলেজে বহিরাগতরা মহরা দিচ্ছে নিয়মিত। নিরীহ ছাত্রদের নানাভাবে হয়রানী করা হচ্ছে। সর্বশেষ দুই ছাত্রকে মারধরের ঘটনায় এক গ্রুপ অন্য গ্রুপকে ফাঁসাতে নিরীহ শিক্ষার্থীদের নামে অভিযোগ দিচ্ছে। এতে তারা শংকিত হয়ে পড়ছেন। কলেজ অধ্যক্ষ আবদুস সালাম হাওলাদার বলেন,ক্যাম্পাসে হামলার ঘটনার বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। আজ দুই গ্রুপ পৃথক কর্মসূচী পালন করলেও কলেজ প্রশাসন থেকে কোন পক্ষই অনুমতি নেয়নি। বর্তমানে যে অবস্থা চলছে তাতে শিক্ষার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। কমে গেছে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি। তবে হামলায় জড়িতদের চিহ্নিত করে কলেজ থেকে বহিস্কার করা হবে।

কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. জসীম বলেন, দুই ছাত্রের উপর হামলার ঘটনায় কোন পক্ষই থানায় অভিযোগ দেয়নি। আজ সকালে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচী পালন করার সংবাদ পেয়ে ক্যাম্পাসে পুলিশ অবস্থান নেয় বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। শনিবার দুপুরে এমবি কলেজ ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীন কোন্দলের জের ধরে ছাত্রলীগের অনার্স শাখার সভাপতি দ্বীপরাজ ও তামিমকে পিটিয়ে আহত করে ছাত্রলীগ কর্মীরা। আহত দুই ছাত্র বর্তমানে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক গ্রুপের ক্যাম্পাসে আধিপত্য বিস্তার ও উপজেলা কমিটিতে এ দুই নেতার পদ পাওয়ার দ্বন্ধের জের ধরে এ হামলা হয়েছে বলে শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেন।

Previous articleকমলগঞ্জে জাহানারা-বাহার একাডেমি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উদ্বোধন
Next articleশাহজাদপুরে প্রফেসর মেরিনা জাহান কবিতা এমপিকে সংবর্ধনা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।