বাবুল আকতার: নওগাাঁর সাপাহারে রাতের বেলা নিজ শয়ন ঘরে ঘুমিয়ে থাকা অবস্থায় রহস্য জনক ভাবে সুন্দরী খাতুন(২০) নামের এক গৃহবধূর মাথার চুল কেটে ফেলে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। এ অমানবিক ঘটনাটি সাপাহার উপজেলার আইহাই দিঘিপাড়া গ্রামে গত মঙ্গল বার দিবাগত মধ্যে রাতে ঘটেছে।

এলাকাবাসী সুত্রে জানাগেছে,উপজেলার কলমুডাঙ্গা বলদিয়াঘাট হাজ্বী পাড়ার বাবু শেখের কন্যা সুন্দরী খাতুনের সাথে প্রায় ৪ বছর পুর্বে একই উপজেলার আইহাই দিঘিপাড়া মোড়ের বাসিন্দা আশরাফ আলীর ছোট ছেলে জোবায়ের হোসেনের বিয়ে হয়। জোবায়ের পেশায় একজন নির্মান শ্রমিক ফলে জীবিকার তাগিদে বিয়ের পর থেকে স্ত্রী সুন্দরী খাতুন কে রেখে সে চট্রগ্রামে অবস্থান করেন। এমতাবস্থায় ওই গৃহ বধুঁ মাঝে মধ্যে বাবার বাড়ি আবার কখনও শ্বশুর বাড়িতে অবস্থান করে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় কয়েকদিন পুর্বে সে বাবার বাড়ি থেকে (ওই গৃহবধু)ঁ আইহাই গ্রামে তার শ্বশুর বাড়িতে আসে। ঘটনার দিন গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে গৃহবঁধু সুন্দরী খাতুন তার ছোট ননদ কে সাথে নিয়ে নিজ শয়ন ঘরে ঘুমিয়ে পড়ে এবং অনুমান রাত আড়াইটার দিকে ঘুমভেঙ্গে গেলে সে দেখতে পান যে কে যেন তার মাথার চুল গোছা ধরে কেটে ঘরের মেজেতে ফেলে রেখেছে। এ ঘটনা নিয়ে রাতেই ওই পরিবারের অন্য সদস্যদের সাথে গৃহবধূর চরম বাকবিতন্ডা শুরু হয়। গৃহ বধু তার এ অবস্থার কথা সকালে বাবার বাড়ির লোকজনকে জানান। সংবাদ পেয়ে নির্যাতিতা গৃহবধূর মা গোলচেহারা বেগম মেয়ের বাড়িতে ছুটে গিয়ে মেয়েকে মাথার চুল কাটা অস্থায় দেখতে পান এবং তৎক্ষনাত তার সাথে তাকে নিজের বাড়িতে নিয়ে আসতে উদ্দ্যত হন।

এসময় গৃহবধূ সুন্দরী খাতুনের শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে তার মা’র সাথে আসতে বাধা দেন। মেয়েকে সাথে আনতে না পেরে নিরুপায় হয়ে গৃহবধুর মা সেখান থেকে ফিরে স্থানীয় আইহাই ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের নিকট যান। চেয়ারম্যান তাৎক্ষনিক বিষয়টি স্থানীয় থানায় অবগত করেন ও তাকে থানায় পাঠিয়ে দেন। নির্যাতনের শিকার মেয়েকে উদ্ধারের জন্য সুন্দরীর মা গোল চেহারা বেগম থানায় লিখিত অভিযোগ দাখিল করলে অভিযোগের প্রেক্ষিতে থানার এস আই জিন্নাতুল ইসলাম সঙ্গিয় ফোর্স সহ তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে পৌছে তদন্ত পুর্বক নির্যাতিত গৃহবধূ সুন্দরী খাতুন কে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন ও প্রয়োজনীয় চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিতে তার মায়ের জিম্মায় দেন।

এ বিষয়ে ঘটনার তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তা এস আই জিন্নাতুল ইসলামের সাথে কথা হলে তিনি বলেন যে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সেখান থেকে ওই গৃহবধূর মাথার কিছু কাটা চুল উদ্ধার করা হয়েছে। উল্লেখিত ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত পুর্বক জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ বিষয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৩৪২,৩২৬,৫৩৪ ধারা মোতাবেক গতকাল দিবাগত রাতে একটি মামলা দায়ের হয়েছে। মামলা নম্বার -৫,জড়িত আসামীদের গ্রেফতারে থানা পুলিশের জোর তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে বলেও তিনি জানান।

ঘটনার বিষয়ে নির্যাতিতা গৃহবধূর শশুর আশরাফ আলীর সাথে কথা হলে তিনি সম্পূর্ন বিষয়টি অস্বিকার করেন ও বলেন যে তার ছেলের অবর্তমানে তাদের পরিবারের লোকজনকে হয়রানী করতে গৃহবধূ সুন্দরী এটি একটি নাটক সাজিয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

Previous articleবানিয়াচংয়ে বজ্রপাতে স্কুলছাত্রীসহ নিহত ৩
Next articleসোনারগাঁওয়ে বর্তমান ও সাবেক চেয়ারম্যানের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ২০
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।