ফেরদৌস সিহানুক শান্ত: চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার ধাইনগরে বয়স্ক, বিধবা ও স্বামী পরিত্যক্ত ভাতাবহি বিতরণের নামে সুবিধাভোগীদের কাছ থেকে অর্থ আদায় অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ইউপি সদস্য ফটিক ও আবদুল মালেকের বিরুদ্ধে।

এ নিয়ে মঙ্গলবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন প্রায় ২০ জন ভুক্তভোগী।
অভিযোগে বলা হয়, সরকারের সামাজিক নিরাপত্তাবেষ্টনী কর্মসূচির আওতায় গত রোববার ধাইনগর ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে বয়স্ক, বিধবা ও স্বামী পরিত্যক্ত ভাতাবহি বিতরণ করেন ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল লতিফ।
এ সময় ৮ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য ফটিক ও ৯ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য আবদুল মালেক প্রায় দেড় শতাধিক সুবিধাভোগীর কাছে ৫’শ থেকে দেড় হাজার টাকা পর্যন্ত অর্থ আদায় করেন। বেশ কয়েকজন সুবিধাভোগী অর্থ দিয়েও মিলেনি ভাতাবহি।

যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ইউপি সদস্য ফটিক ও আবদুল মালেক। তারা দাবি করেন, এসব মিথ্যা। তবে ধাইনগর ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল লতিফের মন্তব্য মেলেনি।

স্থানীয় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল কাদের মন্ডল বলছেন, ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল লতিফ নিয়মবহির্ভূত কাজ করেছেন। তার নির্দেশে সমাজসেবা কার্যালয়ের নাম ভাঙিয়ে অর্থ আদায় করেন ২ ইউপি সদস্য।
বর্তমান সরকারের সুনাম ক্ষুন্নের আশঙ্কায় অভিযুক্তদের শাস্তির দাবি করেন তিনি। এ বিষয়ে উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা কাঞ্চন কুমার দাস জানান, ইউপি সদস্য ফটিক ও আবদুল মালেকের বিরুদ্ধে সুবিধাভোগীদের কাছ থেকে অর্থ আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্ত করে প্রকৃত দোষীদের বিরুদ্ধে শাস্তির ব্যবস্থা নিশ্চিতে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হবে।

Previous articleঈদযাত্রার জন্য প্রস্তুত বাংলাবাজার-শিমুলিয়া নৌ-রুট
Next articleকরাচি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিস্ফোরণে ৩ চীনা নাগরিকসহ নিহত ৪
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।